নাসিরনগর ও গোবিন্দগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যালঘুদের উপর হামলা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে ইয়ুথ গ্রুপের মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিনিধি, | শুক্রবার, নভেম্বর ২৫, ২০১৬
নাসিরনগর ও গোবিন্দগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ধর্মীয় ও জাতিগত 
সংখ্যালঘুদের উপর হামলা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে ইয়ুথ গ্রুপের  মানববন্ধন

বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘের সহযোগিতায় বেগম রোকেয়া ইয়ুথ গ্রুপ, কাজী নজরুল ইসলাম ইয়ুথ গ্রুপ, নিশাত মজুমদার ইয়ুথ গ্রুপ, নুরজাহান বেগম ইয়ুথ গ্রুপ, ওয়াসফিয়া নাজনীন ইয়ুথ গ্রুপ, সিতারা বেগম ইয়ুথ গ্রুপ, রোকেয়া কবীর ইয়ুথ গ্রুপ, সুফিয়া কামাল ইয়ুথ গ্রুপ, সাকিব আল হাসান ইয়ুথ গ্রুপ ও শিরিন বানু মিতিল ইয়ুথ গ্রুপ-এর উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘নাসিরনগর ও গোবিন্দগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যালঘুদের উপর হামলা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে এক মানববন্ধন’ অনুষ্ঠিত হয়। ঘন্টাব্যাপী এই মানববন্ধনে ঢাকার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন। মানব বন্ধনে বক্তব্য বক্তব্য রাখেন-কাজী নজরুল ইসলাম ইয়ুথ গ্রুপের সদস্য চৌধুরী সারা মাহাজাবি ও সাব্বির হোসেন, নিশাত মজুমদার ইয়ুথ গ্রুপের সদস্য নাদিয়া আকতার শারমীন, নূরজাহান বেগম ইয়ুথ গ্রুপের সদস্য সাথী আকতার, ওয়াসফিয়া নাজনীন ইয়ুথ গ্রুপের সদস্য হনুফা পারভীন, সাকিব আল হাসান ইয়ুথ গ্রুপের সদস্য রাকিব আহমেদ প্রমুখ।

মানব বন্ধনে বক্তারা বলেন- ‘ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যালঘু যেই হোক না কেন সবচেয়ে বড় বিষয় হচ্ছে তারা এদেশের নাগরিক। কোন অজুহাতেই তাদের উপর কোন রকম নির্যাতন বা বৈষম্য করা যাবে না। আমরা নাসিরনগর ও গোবিন্দগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যালঘুদের উপর সংঘটিত হামলা ও নির্যাতনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই এবং একইসাথে অবিলম্বে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করার জন্য দাবি জানাই। বাংলাদেশের মাটিতে এধরণের ঘটনার পূণরাবৃত্তি আমরা চাই না। ধর্মীয় ও জাতিগত ক্ষতিগ্রস্ত সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তাসহ তাদের ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানাই। একই সাথে সারা দেশের যুবসমাজের প্রতি আহ্বান জানাই আপনাদের এলাকায় ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যালঘুদের উপর যাতে কোন দুস্কৃতিকারী এধরণের ঘটনা না ঘটাতে পারে সে ব্যাপারে সতর্ক দৃষ্টি রাখুন এবং দুস্কৃতিকারীদের রুখে দাড়ান।