ভোটের আগের দিন ডগ স্কোয়াড নিয়ে র‌্যাবের তল্লাশি

স্টাফ রিপোর্টার, | বুধবার, ডিসেম্বর ২১, ২০১৬
ভোটের আগের দিন ডগ স্কোয়াড নিয়ে র‌্যাবের তল্লাশি
সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটের আগের দিন নারায়ণগঞ্জ শহরে তল্লাশি চালাচ্ছে র‌্যাব। বিভিন্ন যানবাহনে বাহিনীটির ডগ স্কোয়াড নিয়ে এই তল্লাশি চালানো হয়। বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দলও অংশ নেয় এতে।
বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে নগরীর চাষাঢ়া এলাকায় তল্লাশি চালানো হয়। তবে এ সময় কাউকে আটক করা হয়নি। অস্ত্রও উদ্ধার হয়নি কোনো।
আলোচিত এই সিটি নির্বাচনে বিএনপি সেনা মোতায়েনের দাবি জানালেও নির্বাচন কমিশন তা গ্রাহ্য করেনি। তবে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে বিজিবির পাশাপাশি মোতায়েন করা হয়েছে র‌্যাব, পুলিশ, অস্ত্রধারী আনসার সদস্যসহ সাড়ে নয় হাজার নিরাপত্তাকর্মী।
র‌্যাব-১১ উপ-অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নরেশ চাকমা জানান, এই নির্বাচনে অন্যান্য বাহিনীর সঙ্গে তাদের ছয়শ সদস্য নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে। তারা মূলত স্টাইকিং ফোর্স হিসেবে নির্বাচনে দায়িত্ব পালন করবে।

এই র‌্যাব কর্মকর্তা জানান, অন্যান্য ভোটকেন্দ্রের ন্যায় যেসব কেন্দ্র ঝুকিপূর্ণ সেসব কেন্দ্রকে গুরুত্ব দিয়ে কাজ করবেন তারা। পোশাকধারী নিরাপত্তা কর্মীর পাশাপাশি সাদা পোশাকে থাকবেন তারা।
রিটার্নিং কর্মকর্তা নুরুজ্জামান তালুকদার জানিয়েছেন, সুষ্ঠ ভোটের জন্য বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ আনসার সদ্যদের সমন্বয়ে সাড়ে নয় হাজার সদস্য মোতায়েন থাকবে। প্রতিটি কেন্দ্রেই থাকবে ২২ থেকে ২৪ জন নিরাপত্তাকর্মী।

ভোটের নিরাপত্তায় এরই মধ্যে নারায়ণগঞ্জে নেমেছে ২২ প্লাটুন বিজিবি। গত সোমবার সন্ধ্যা থেকেই তারা নগরীর বিভিন্ন এলাকায় টহল দিচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সকাল আটটা থেকে ১৭৪টা ভোট কেন্দ্রে একটানা বিকেল চারটা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলবে। ভোটের নিরাপত্তার দিকটি সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে জানিয়ে প্রত্যেকটি ভোটকেন্দ্রকেই গুরুত্বপূর্ণ ধরে কার্যক্রম চালানো হবে বলেও জানান রিটানির্ং কর্মকর্তা।

গত ৫ ডিসেম্বর থেকেই আনুষ্ঠানিক প্রচার শুরু হয় নারায়ণগঞ্জে। সন্ত্রাসকবলিত এই এলাকায় নির্বাচনে নিরাপত্তা নিয়ে প্রচার শুরুর আগে থেকেই নানা অভিযোগ করে আসছিলেন প্রার্থীরা। তবে এখন পর্যন্ত বলার মতো কোনো অনাকাক্সিক্ষত পরিস্থিতি তৈরি হয়নি।