ভৈরব রেলওয়ে ষ্টেশন সড়কের বেহাল দশা

জয়নাল আবেদীন রিটন | বুধবার, ফেব্রুয়ারী ৮, ২০১৭
ভৈরব রেলওয়ে ষ্টেশন সড়কের বেহাল দশা
ভৈরব রেলওয়ে জংশন সড়কটি দীর্ঘদিন যাবত সংস্কার না হওয়ায় উক্ত সড়কে চলাচলকারি হাজার হাজার রেল যাত্রীসহ শহরের আমলাপাড়া, জগন্নাথপুর, পঞ্চবটি এলাকার হাজার হাজার মানুষ প্রতিদিন দূর্ভোগের শিকার হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু স্বরণী থেকে ভৈরব রেলওয়ে ষ্টেশন পর্যন্ত সড়কটি জুড়ে ছোট বড় খানা খন্দের সৃষ্টি হওয়ায় যাত্রী সাধারণ ও এলাকাবাসিদের চলাচলে মারাতœক দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।  এক দিকে সড়কে খানা খন্দ ও গর্তে সৃষ্টি হয়ে যানবাহন চলাচলে অযোগ্য হয়ে পড়েছে, অন্য দিকে সড়কের উপর রেলওয়ের ঠিকাদারি প্রতিষ্টান প্রতিদিন দশ বারোটি ট্রাকে করে পাথর এনে এই সড়কের উপর মজুদ করার ফলে যান ও জনসাধারণ চলাচলই অসম্ভব হয়ে পড়েছে। এ যেন মরার উপরখাড়ার ঘা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ট্রাক চলাচলে রাস্তাটির আরো করুন আকার ধারণ করেছে। সড়কটিতে ছোটবড় শত শত গর্তের সৃষ্টি হয়ে যানবাহনে চলাচলতো দুরের কথা পায়ে হাঁটাই দায় হয়ে পড়েছে। এ রাস্তার বেহাল দশার কারণে অনেক সময় ট্রেন ফেল করে যাত্রী সাধারণ তাদের মূল্যবান সময় নষ্ট করছে। তাছাড়া রাস্তার পাশে পৌরসভার ফেলানো বর্জ্যে আগুন লাগানোর ফলে ধুলি , ধোঁয়ায় একাকার হয়ে যাচ্ছে। রাস্তার দুরবস্থার কারণে বিভিন্ন গন্তব্য থেকে রিক্সা ভ্যান , অটো, যাত্রী ও মালামাল নিয়ে ষ্টেশনের দিকে ভাড়া নিয়ে আসতে অনিহা প্রকাশ করে। অনেক সময় আসতে রাজি হলেও যাত্রীদের ভাড়া গুনতে হচ্ছে দ্বিগুন। এ ছাড়া উক্ত সড়কে প্র্য়া সময় দূর্ঘটনা ঘটছে। এ রাস্তাটির বেহাল দশা দীর্ঘদিন যাবত। রাস্তাটি রেলের আওতা ভুক্ত হওয়ায় পৌর কর্তৃপক্ষ রাস্তা সংস্কারে কোন পদক্ষেপ নিতে পারছেনা। অপর দিকে স্থানিয় রেলের কর্মকর্তাদের দায়িত্ব অবহেলা ও গাফিলতের কারণে দীর্ঘদিন যাবত সড়কটি চলাচলে অযোগ্য হয়ে পড়ায় রেলষ্টেশন সংলগ্ন বিভিন্ন গ্রামের বাসিন্ধা ও ভৈরব থেকে দেশের বিভিন্ন গন্তব্য যাতায়াতকারী যাত্রীদের মাঝে চরম ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। তারা অবিলম্ভে রাস্তাটি সংস্কার করে যাত্রী ও জন সাধারণের দূর্ভোগ লাগবে সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নিকট জোড় দাবী জানাচ্ছেন। এ বিষয়ে  ভৈরব বাজার ঘাট রেলওয়ে উর্ধ্বতন উপ-সহকারি প্রকৌশলী বিল্লাল হোসেনের সাথে মোঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান রাস্তাটি সংস্কারে ও সড়কের উপর থেকে পাথর অপসারনে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে তিনি লিখিতভাবে জানিয়েছেন ।