ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষকের বাড়িতে ছাত্রীর অবস্থান

গাইবান্ধা প্রতিনিধি, | সোমবার, মার্চ ২৭, ২০১৭
ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষকের বাড়িতে ছাত্রীর অবস্থান
ধর্ষণের অভিযোগ এনে গত ২২ মার্চ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের বাড়িতে গিয়ে উঠে এক কলেজছাত্রী। গত পাঁচদিন ধরে ওই বাড়িতেই অবস্থান করছিল মেয়েটি। স্থানীয়ভাবে সমাধান না হওয়ায় বিষয়টি থানা পর্যন্ত গড়ায়। পরে পুলিশ রবিবার রাতে ওই শিক্ষকের বাড়িতে গিয়ে মেয়েটিকে নিয়ে আসে। ঘটনাটি ঘটেছে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে হরিরামপুর ইউনিয়নের একটি গ্রামে।ওই তরুণীর দাবি, গত ২২ মার্চ অপহরণের পর তাকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায় ওই শিক্ষক। এরপর তিনি ওই শিক্ষকের বাড়িতে গিয়ে উঠেন।   

গত পাঁচ দিন ধরে ওই শিক্ষকের বাড়িতেই অবস্থান কলছিল মেয়েটি। বিষয়টি স্থানীয়ভাবে সমাধানের উদ্যোগ নেয়া হয়। কিন্তু সমাধান না হওয়ায় মেয়েটির পরিবার থানায় মামলা করে। মামলায় ওই শিক্ষকসহ চারজনকে আসামি করা হয়েছে। মামলার পর পুলিশ রবিবার রাতে ওই শিক্ষকের বাড়িতে গিয়ে মেয়েটিকে নিয়ে আসে।

অভিযোগের সত্যতা জানতে ওই শিক্ষকের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। তবে ওই গ্রামের বাসিন্দা ছাদেক আলী জানান, এ ঘটনার পর থেকে ওই শিক্ষক পলাতক রয়েছে।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মজিবুর রহমান ঢাকাটাইমসকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, থানায় মামলা করার মেয়েটিকে ওই শিক্ষকের বাড়ি থেকে এনে তার পরিবারের কাছে দেয়া হয়েছে। মামলায় চারজনকে আসামি করা হয়েছে।মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ফনি ভুষণ দাস  জানান, সোমবার সকালে ভিকটিমের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।  আসামিদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।