বড়হাটে জঙ্গি আস্তানায় বিস্ফোরণ, পুলিশ আহত

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি | শুক্রবার, মার্চ ৩১, ২০১৭

বড়হাটে জঙ্গি আস্তানায় বিস্ফোরণ, পুলিশ আহত
মৌলভীবাজার পৌর এলাকার বড়হাটে সন্দেহভাজন জঙ্গি আস্তানায় অভিযানের সময় এক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। তার নাম কওছর মিয়া। তিনি মৌলভীবাজার রেঞ্জ পুলিশের সদস্য। আস্তানাটিকে ঘিরে ‍গুলি করার পর ভেতর থেকে আসা বস্তুর আঘাতে তিনি আহত হন।

এই আস্তানাকে ঘিরে পুলিশের অভিযান মেক্সিমাস শুরুর ঘণ্টা চারেক পর সেখানে একাধিক বিস্ফোরণের ঘটনাও ঘটে।

গত বুধবার থেকে ঘেরাও করে রাখা আস্তানায় অভিযান শুরু হয় শুক্রবার সকালে। পুলিশের বিশেষায়িতক ইউনিট সোয়াটের সদস্যরা বাড়ির দেয়াল ভেঙে ভেতরে গ্যাস ছুড়ে। সকাল থেকে বাড়ির ভেতর থেকে গুলির আওয়াজ পাওয়া না গেলেও ১২টা ১০ থেকে ১২টা ৫৫ মিনিট পর্যন্ত বিকট শব্দে তিনটি বিস্ফোরণের আওয়াজ পাওয়া যায়। এছাড়া টানা চলছে গুলি। এ সময় আহত হন একজন পুলিশ সদস্য। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে নেয় পুলিশের অন্য সদস্যরা।

পুলিশের বিশেষায়িত ইউনিট সোয়াটের অভিযানের নাম দেয়া হয়েছে অপারেশন ম্যাক্সিমাস। বুধবার আস্তানাটি ঘেরাও করে পুলিশ। শুক্রবার সকালে অভিযান শুরু করে সোয়াট। তারা গুলি করতে করতে বাড়িটির দিকে এগিয়ে যায়।

তবে এই আস্তানায় কয়জন আছে সে বিষয়ে নিশ্চিত নয় পুলিশ। পুলিশের জঙ্গিবিরোধী বিশেষ শাখা কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘তাদের সংখ্যা কত, ভেতরে তারা জীবিত না মৃত অবস্থায় আছে, সেটাও আমরা বলতে পারছি না। অভিযান শেষ হলেই এ বিষয়ে জানানো হবে।’ বাড়ির আশেপাশে ঘনবসতি থাকায় আমাদের অভিযানটা বিলম্বিত হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার শাহজালাল ঢাকাটাইমসকে বলেন, জেলা পুলিশের সদস্য কাওসার জঙ্গি আস্তানার দিকে কাঁদানে গ্যাস মারছিলেন। এসময় আহত হয়েছেন তিনি। তাকে অ্যাম্বুলেন্সে সিলেট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।