এমপির মহানুভবতায় অধিক প্রাণহানি থেকে রক্ষা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি, | শুক্রবার, মে ১৯, ২০১৭
এমপির মহানুভবতায় অধিক প্রাণহানি থেকে রক্ষা
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে সংসদ সদস্যের মহানুভবতায় অধিক প্রাণহানি থেকে রক্ষা পেয়েছে এলাকাবাসী। গতকাল বৃহস্পতিবার কালীগঞ্জ শহরে একটি বাস দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত ও ৩০ জন যাত্রী আহত হন। এ ঘটনায় সংসদ সদস্য নিজে অ্যাম্বুলেন্স চালিয়ে রোগীদের হাসপাতালে পৌঁছে দিয়ে এ মহৎ কাজটি করেন।

কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার যশোর থেকে কালীগঞ্জগামী শাপলা পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের একটি কড়াই গাছে ধাক্কা মারে। এতে নারী-শিশুসহ কমপক্ষে ৩০ জন আহত হন। স্থানীয় জনতা ও কালীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। খবর পেয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য মো. আনোয়ারুল আজিম আনার হাসপাতালে ছুটে যান এবং রোগীদের চিকিৎসার ব্যাপারে খোঁজখবর নেন। আহতদের মধ্যে ১০ জনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদের যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্সে করে আহত রোগীদের যশোর হাসপাতালে নেয়া হয়। কিন্তু হাসপাতালের একটি অ্যাম্বুলেন্সে ১০ জন রোগী নেয়া সম্ভব হচ্ছিল না। পরে হাসপাতালের পুরাতন অ্যাম্বুলেন্সটি তাৎক্ষণিকভাবে মেরামত করে সংসদ সদস্য মো. আনোয়ারুল আজিম আনার নিজে চালিয়ে বাকি রোগীদের নিয়ে যশোর হাসপাতালে যান। সেখানে রোগীদের ভর্তি করে তিনি চিকিৎসার বিষয়ে খোঁজখবর নেন এবং রোগীদের পাশে বেশ কিছুক্ষণ সময় কাটান। সংসদ সদস্যের এই উদ্যোগে প্রাণহানির সংখ্যা বাড়েনি বলে মনে করে কালীগঞ্জবাসী।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. প্রফুল্ল কুমার মজুমদার বলেন, ‘হাসপাতালের একটি অ্যাম্বুলেন্স চালু আছে। সেটিও এম.পি মহোদয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে অনুদান নিয়ে এসেছেন। আর পুরাতন অ্যাম্বুলেন্সটি অকেজো হয়ে গ্যারেজে পড়ে আছে। এই একটি অ্যাম্বুলেন্সে এক সাথে ১০ জন রোগী নেয়া সম্ভব হচ্ছিল না। সে ময় হাসপাতালে পড়ে থাকা পুরাতন অ্যাম্বুলেন্সটি তাৎক্ষণিকভাবে মেরামত করে এমপি মহোদয় নিজে চালিয়ে বাকি রোগীদের নিয়ে যশোর যান।’

স্বাস্থ্য কর্মকর্তা বলেন, ‘রোগীদের তাৎক্ষণিকভাবে যশোর নিয়ে চিকিৎসা দেয়াতে অধিক প্রাণহানি থেকে রক্ষা পাওয়া গেছে। তারপরেও ওই ঘটনায় তিনজন রোগী মারা গেছেন।’

এ ব্যাপারে সংসদ সদস্য মো. আনোয়ারুল আজিম আনার ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘জানমালের মালিক আল্লাহ। আমি শুধু মানুষের কষ্টে কাছে থাকতে চেয়েছি। এতে আল্লাহ যদি কারো আয়ু বাড়িয়ে থাকেন তাতে আল্লাহর কাছে হাজার শুকরিয়া।’