নারায়নগঞ্জে দামী ফ্লাটে ‘ভয়ংকর মধুকুঞ্জ’! এক কিশোরী, দুই যুবতী সহ ৫ প্রতারক আটক

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি | রবিবার, জুন ৪, ২০১৭
নারায়নগঞ্জে দামী ফ্লাটে ‘ভয়ংকর মধুকুঞ্জ’! এক কিশোরী, দুই যুবতী সহ ৫ প্রতারক আটক
দামী ফ্ল্যাট বাসা ভাড়া নিয়ে  ‘টাকাওয়ালাদের’ টার্গেট করে  কৌশলে দেহব্যবসা সহ ব্লাকমেইলিং এর নানা অপরাধ চালিয়ে আসছিলেন একটি ভয়াবহ চক্র। বিভিন্ন কায়দায় সুন্দরী নারীর প্রলোভন দেখিয়ে  নানা পেশার লোকজনকে  ফ্ল্যাটে ডেকে নিয়ে আসতো তারা । এরপর সুযোগ বুঝে  বিবস্ত্র করে নারীদের সঙ্গে মোবাইলে ছবি তুলে ব্ল্যাকমেইল করে বড় অংকের টাকা হাতিয়ে নিত ।

এমন বেশ কয়েকটি ঘটনার শিকার মানুষ লোকলজ্জায় বিষয়টি চেপে রাখতেন এমনকি  তাদের খপ্পরে পরে প্রায় সর্বস্ব হারিয়েছেন এমন মানুষের খবরও পাওয়া গিয়েছে। শুধু তাই নয়! প্রথমবার ন্যুড ছবি তুলে ব্লাকমেইলিং এর পর নানা সময়ে বিভিন্ন কায়দায় পরিবারের সদস্যদের এসব  জানানোর ভয় দেখিয়ে সিরিজ আকারে টাকা আদায়ের অভিযোগও উঠেছে এই চক্রের বিরুদ্ধে।

ঘটনাস্থল নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা। পুলিশ জানায়, ওই চক্রটি সুন্দরী নারীর প্রলোভন দেখিয়ে ফ্ল্যাটে নিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে বড় অংকের টাকা হাতিয়ে নিত। তাদের খপ্পরে পরে অনেকেই সর্বস্ব হারিয়েছেন।

বাড়ির মালিকের সচেতনতার ফলেই ভয়ংকর কোন ঘটনা ঘটার আগেই পুলিশের হাতে আটক হয়েছেন প্রতারক চক্রটি ।

বাড়িওয়ালা সেলিম মিয়া জানিয়েছেন মাস ছয়েক আগে ভদ্রবেশি এক লোক তার স্ত্রী ছোট বোন ও শ্যালিকা পরিচয়ে চারজন মিলে তার বিল্ডিং এর একটি ফ্লাট ভাড়া নেয়। ঐ যুবক তার পরিচয়ে বলেছিলো এক্সপোর্ট-ইম্পোর্টের ব্যবসা আছে তার ।

তবে দিনকতক পরেই নানা ঘটনায় বিভিন্ন লোকজনের আনাগোনায় সন্দেহ বাড়ে বাড়ির মালিকের । প্রথমদিকে দেশের চলমান পরিস্থিতিতে বাড়িওয়ালা জঙ্গি সন্দেহে নজরদারি শুরু করে ভাড়াটিয়াদের উপর ।  পরবর্তিতে ভাড়াটিয়ার দেহব্যবসা সহ প্রতারনা ও ব্লাকমেইলিংএর  সন্ধান পায়  বাড়িওয়ালা।

পরে ভাড়াটিয়া এক পুরুষ,  তিন নারী ও এক  খদ্দেরসহ ৫ জনকে পুলিশে দিয়েছেন তিনি। শুক্রবার দুপুরে ফতুল্লার দক্ষিণ সস্তাপুর এলাকায় এ ঘটনায় বাড়িওয়ালা বাদী হয়ে ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- বজলু মিয়া (৩৫), আব্দুর রহিম(৪২), রিনা বেগম (২৫), খাদিজা আক্তার (২৮)ও সুমি (১৭)।  তাদের বিস্তারিত পরিচয় তাৎক্ষণিক পাওয়া যায়নি।