চাঁপাইনবাবগঞ্চে পথের ধারে তালের শাঁস বিক্রিতেই জীবিকা

আখতারুজ্জামান চাঁপাইনবাবগঞ্জ | বৃহস্পতিবার, জুন ২২, ২০১৭
চাঁপাইনবাবগঞ্চে পথের ধারে তালের শাঁস বিক্রিতেই জীবিকা
চাঁপাইনবাবগঞ্জের পিটি আই এলাকার বাদশা আলি। (৪৫) উর্ধ বয়সের  চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের বালুবাগান এলাকার পথের ধারে তালের শাঁস বা তালপানি বিক্রি করছেন বেশ কয়েকদিন থেকে। সাথে তার এক ছেলে মারুফ,  সারাদিন তালের শাঁস বিক্রি করতে সহযোগিতা করছেন। সারা বছর অন্য কাজ করলেও প্রতি বছরই তারা মৌসুমী পেশা হিসেবেই এ সময়টা মাস খানেকের মতো তালের শাঁস বিক্রি করেই সংসার চালান। এ কাজে আয় কেমন হয় জানতে চাইলে বাদশা আলি সামপ্রতিক দেশকাল চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি আখতারুজ্জামানকে জানান, ‘‘আয় খুব বেশি নয়, তবে ধরেন পাইঠের পয়সাটা উঠে’’। কথায় বলে উঠেন বাদশা আলি, ‘‘এ কাজটা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ- তালের গাছ থেকে তাল পাড়া খুবই কষ্টকর’’। সাধারণত তারা তালগাছ মালিকের কাছ থেকে তাল ঠিকা (নির্ধারিত দাম) কিনে নেন, এরপর তার  ছেলে গিয়ে সেগুলো তালগাছ থেকে পেড়ে নিয়ে আসে। অনেক সময় তিনিও যান। এছাড়াও অনেক সময় অনেক তালগাছ মালিকের সাথে অর্ধেক চুক্তিতে তাল পেড়ে দেন তারা। এতে কোন টাকা লাগেনা।  বাদশা আলি জানান- তালগুলো শহরে এনে সাধারণত বাজারের আশেপাশে পথের ধারে বসে তাল থেকে শাঁস বের করে বিক্রি করেন। ক’দিন নিউমার্কেট এলাকায় বসেছিলেন, তবে এখন বালুবাগান এলাকায় তিন দিন থেকে বিক্রি করছেন। বর্তমানে কেমন বিক্রি হচ্ছে জানতে চাইলে বাদশা আলি জানান, খারাপ না, ভালই হচ্ছে।  বিক্রি কমেনি, সকাল থেকে আমরা তালগুলো কেটে রাখি, দুপুরের পর থেকেই বিক্রি ভাল হয় া  সবাই বেশি বেশি করে কিনে নিয়ে যায় । বাদশা আলি জানান, তালের শাঁস এক হালি ১০ টাকা করে বিক্রি করছেন।, অনেক সময় বেশি নিলে কমও রাখেন। তালের শাঁস কিনতে শিবতলার আব্দুল সোহেল জানান, তালের শাঁসের দাম একটু বেশিই, ১০ টাকায় ১ হালি, তারপরও খেতে ভালোই লাগে । দাম যাই হোক অনেকেই প্রতিদিনই তালের শাঁসের স্বাদ নিচ্ছেন।