খুলনায় স্টার জুট মিলের উৎপাদন বন্ধ

খুলনা প্রতিনিধি, | শনিবার, অক্টোবর ৭, ২০১৭
খুলনায় স্টার জুট মিলের উৎপাদন বন্ধ
বকেয়া মজুরির দাবিতে খুলনার প্লাটিনাম ও ক্রিসেন্ট জুট মিলের পর এবার স্টার জুট মিলের উৎপাদন বন্ধ করে দিয়েছে শ্রমিকরা। পাঁচ সপ্তাহের বকেয়া মজুরি পরিশোধের দাবিতে শনিবার সকাল ৬ টায়  শ্রমিকরা মিলের উৎপাদন বন্ধ করে দেয়।
স্টার জুট মিলের সিবিএ সভাপতি বেল্লাল মল্লিক ঢাকাটাইমসকে জানান, শ্রমিকদের পাঁচ সপ্তাহের মজুরি বকেয়া রয়েছে। তারা মানবেতর জীবন-যাপন করছেন। এ জন্য আজ সকাল ৬ টা থেকে ক্ষুব্ধ শ্রমিকরা মিলের উৎপাদন বন্ধ করে দিয়েছে।এর আগে বুধবার সকাল সাড়ে ৬ টায় সাত সপ্তাহের মজুরির দাবিতে প্লাটিনাম জুট মিলের উৎপাদন বন্ধ করে দেয় শ্রমিকরা।একই দাবিতে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টা থেকে মিলের উৎপাদন বন্ধ রেখে বিক্ষোভ শুরু করে ক্রিসেন্ট জুট মিলের শ্রমিকরা।
খুলনার এ তিনটি জুটমিলে প্রায় সাড় ১৪ হাজার স্থায়ী ও অস্থায়ী শ্রমিক রয়েছে।

শ্রমিকরা জানায়, তারা নিয়মিত  সপ্তাহের মজুরি পাচ্ছেন না। টাকার অভাবে ছেলে-মেয়েরা না খেয়ে মুখের দিকে চেয়ে আছে।  ফলে বাধ্য হয়ে মিলের উৎপাদন বন্ধ করে দিতে হয়েছে।

ক্রিসেন্ট জুট মিলের সিবিএ সাধারণ সম্পাদক সোহরাব হোসেন জানান, সাত সপ্তাহের মজুরি না পেয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছে শ্রমিকরা। বকেয়া বেতন না পাওয়া পর্যন্ত শ্রমিকরা কাজে যোগ দেবে না।

ক্রিসেন্ট জুট মিলের উপ-মহাব্যবস্থাপক আহমেদ হোসেন বলেন, মিলে প্রায় ৫০ কোটি টাকার উৎপাদিত পণ্য অবিক্রিত রয়েছে। ফলে আর্থিক সংকটের কারণে পাওনা পরিশোধে হিমশিম খেতে হচ্ছে। তার মিলে শ্রমিকদের ছয় সপ্তাহের মজুরি এবং দুই মাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন বকেয়া রয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।