বগুড়ায় গৃহবধূকে হত্যাকারী স্বামীর বাড়িতে ভাংচুর, আটক-৩

এফএনএস: | রবিবার, অক্টোবর ১৫, ২০১৭
বগুড়ায় গৃহবধূকে হত্যাকারী স্বামীর বাড়িতে ভাংচুর, আটক-৩

আদমদীঘি উপজেলার জয়দেবপুরপাড়া গ্রামে ফেরদৌসি বেগম (২৪) নামের এক গৃহবধুকে হত্যাকারী স্বামী আল আমিন ও তার পরিবারের সদস্যদের গ্রেফতার ও বিচার দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন সহ নানা আন্দোলন কর্মসূচি পালনের পর এবার বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও আগুন লাগিয়ে দিয়েছে বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসী। ঘটনাটি ঘটেছে গত শনিবার দুপুরে। পুলিশ বিকাল সাড়ে ৪টায় ঘাতক আল আমিনের ভাই ও নানী-খালাকে আটক করেছে। জানা গেছে, আদমদীঘি উপজেলার কুন্দুগ্রাম ইউনিয়নের তিলোচ সিতাহার পাড়ার বিদ্যুত আলী খানের মেয়ে ফেরদৌসি বেগমের ৬ বছর পূর্বে একই এলাকার জয়দেবপুর পাড়ার জামাল উদ্দিন আকন্দের ছেলে আল আমিনের সাথে বিয়ে হয়।

বিয়ের পর ফেরদৌসি জানতে পারে স্বামী আল আমিন পরকিয়ায় আসক্ত। সেই পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় তাদের বিয়ে বিচ্ছেদের ঘটনা ঘটে। এর ৫ মাস পর সমঝোতার মাধ্যমে ফের ফেরদৌসি বেগমকে বিয়ে করে আল আমিন। বিয়ের পর ফের শুরু করে নানা নির্যাতন। এর একপর্যায়ে ২২ সেপ্টেম্বর ফেরদৌসি বেগমের মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। গতকাল শনিবার গ্রামবাসী ঘাতক আল আমিনের নিকটাত্মীয় মাধ্যমে, গৃহবধু ফেরদৌসি বেগমকে তার লম্পট স্বামী পিটিয়ে হত্যা করেছে মর্মে নিশ্চিত খবর জানতে পারেন। এতে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে গ্রামের সব বয়সী নারী-পুরুষ। তারা দলবদ্ধ হয়ে গতকাল শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে আল আমিনের বাড়িতে চড়াও হয়ে ব্যাপক ভাংচুর শেষে ঘড়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। খবর পেয়ে নওগাঁ থেকে দমকল বাহিনী গিয়ে প্রায় দুই ঘন্টা চেষ্টা করে আগুন নেভাতে সক্ষম হয়। তবে তার পুর্বেই প্রায় সব কিছুই পুড়ে যায় বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে আদমদীঘি সার্কেলের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার আলমগীর রহমান ও থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ আবু সাঈদ মোঃ ওয়াহেদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেছেন এ ঘটনায় ঘাতক আল আমিনের বড় ভাই জিল্লুর রহমান, নানী বেগম খাতুন ও খালা নাজমা বেগমকে আটক করা হয়েছে