নরসিংদীতে এতিহ্যবাহী বাউল মেলায় উপচেপড়া ভিড়

নরসিংদী প্রতিনিধি | বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী ১, ২০১৮
নরসিংদীতে এতিহ্যবাহী বাউল মেলায় উপচেপড়া ভিড়
নরসিংদীতে শত বছরের পুরনো ঐতিহ্যবাহী বাউল মেলা শুরু হয়েছে।  জেলা শহরের কাউরিয়াপাড়ায় মেঘনা নদের তীরঘেষা বাউল আখড়াধামে ঐতিহ্যবাহী এ মেলা শুরু হয়েছে। বিগত শত শত বছরের ধারাবাহিকতায় এবারও ঐতিহ্যবাহী এ মেলায় পাশের দেশ ভারতসহ দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আগত হাজারো বাউল শিল্পী-ভক্তবৃন্দরা সমবেত হয়েছেন।

মেলা উপলক্ষে জেলা শহরসহ দূর-দূরান্ত থেকে আগত ব্যবসায়ীরা মেঘনার তীরে গ্রাম-বাংলার মানুষের ঐতিহ্যবাহী নানা প্রকার মুখরোচক খাবার ও  বিভিন্ন পণ্যসামগ্রীর স্টল সাজিয়েছে। একদিকে পায়েস-পিঠায় শীতের আমেজ, অপরদিকে শিশু-কিশোরসহ নানাবয়সী দর্শনার্থীর পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে মেঘনা তীর।

সপ্তাহব্যাপী এই মেলা ৩০ জানুয়ারি থেকে ৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে।

বাউল ঠাকুরের আখড়াধামের আদি-উৎপত্তি ও মেলার প্রারম্ভিক-যাত্রা সম্পর্কিত কোন সুস্পষ্ট হিসাব না থাকলেও ধারণা করা হয়- প্রায় ৭/৮শ বছর আগে এক বাউল ঠাকুরের আগমন ঘটেছিল। বাউল ঠাকুর নিজেকে শুধু বাউল বলেই পরিচয় দিতেন বলে তার প্রকৃত নাম জানা যায়নি। এরই ধারাবাহিকতায় আগত বাউল ঠাকুরের নামানুসারে মেঘনা নদীর তীরে বাউল আখড়াধামে মেলাটি অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। কে বা কারা ঐতিহ্যবাহী এ বাউল মেলা শুরু করেছিলেন তার প্রকৃত তথ্যও জানা যায়নি।  তবে স্বর্গীয় ডা. মনিন্দ্র চন্দ্র বাউল ঐতিহ্যবাহী এ মেলার আয়োজন করেছেন বলে মনে করা হয়। তৎকালীন বাউল পরিবারের উত্তরাধিকারীরা পর্যায়ক্রমে এই মেলার আয়োজন করে আসছেন।

এরই ধারাবাহিকতায় বর্তমান আয়োজকদের মধ্যে সাধন চন্দ্র বাউল, মৃদুল বাউল মিন্টু, শীর্ষেন্দু বাউল পিন্টু, মলয় বাউল রিন্টু এবং প্রাণেশ কুমার ঝন্টু বাউল অন্যতম। প্রাণেশ কুমার ঝন্টু বাউল নরসিংদীর বাউল আখড়া বাড়ির তত্ত্বাবধায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

বাউল বাড়ির আখড়াধামের তত্ত্বাবধায়ক প্রাণেশ কুমার ঝন্টু বাউল জানান, বিগত বছরের ন্যায় এবারও ৭/৮শ বছরের ঐতিহ্যবাহী বাউল  মেলার আয়োজন করা হয়েছে। বাউল সম্প্রদায়ের নিয়মানুযায়ী মাঘী-পূর্ণিমা তিথিতে বাউল মেলার আয়োজন করা হয়ে থাকে। শত বছরের পুরনো এ বাউল মেলা কোন প্রচার-প্রচারণা ছাড়াই ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল বয়সী মানুষের অংশগ্রহণে সরগরম হয়ে উঠেছে।