বাবার পর ছেলের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা

ভোলা প্রতিনিধি | শনিবার, ফেব্রুয়ারী ১০, ২০১৮
বাবার পর ছেলের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা
ভোলায় এক শ্রবণ প্রতিবন্ধী কিশোরীকে মইন হাসান সম্রাট নামে এক যুবক ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় শুক্রবার সকালে ভুক্তভোগী নিজে ভোলা সদর মডেল থানায় একটি মামলা করেছেন।

ভুক্তভোগীর স্বজনদের অভিযোগ, এর আগে সম্রাটের বাবা ওই কিশোরীর প্রতিবন্ধী ছোট বোনকে ধর্ষণ করে। এ নিয়ে আদালতে সম্রাটের বাবা শফিউদ্দিনের বিরুদ্ধে একটি মামলা চলমান রয়েছে।

বৃহস্পতিবার সদর উপজেলার উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগীর মা জানান, বিকালে তার ১৮ বছর বয়সী শ্রবণ প্রতিবন্ধী মেয়ে ঘরে ঘুমাচ্ছিলেন। আর  তিনি পাশের ঘরে টিভি দেখছিলেন।  কিছুক্ষণ পরে মেয়ের চিৎকারে এগিয়ে এলে ঘরে পাশ্ববর্তী শফিউদ্দিনের ছেলে মইন হাসান সম্রাটকে দেখতে পান তিনি। তিনি ও তার ছোট মেয়ে সম্রাটকে আটকানোর চেষ্টা করলে ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে সে পালিয়ে যায়। এসময় তার অপর মেয়েকে ঘরে রক্তাক্ত পড়ে থাকতে দেখেন। খবর পেয়ে স্থানীয়রা এগিয়ে আসেন। স্থানীয়দের সহায়তায় আজ তারা  সম্রাটের  বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেন। বর্তমানে অভিযুক্ত মইন হাসান সম্রাট পলাতক রয়েছেন।

ভোলা সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. তাছলিমা জান্নাত জানান, ভুক্তভোগীকে মেডিকেল টেস্টের জন্য পাঠানো হয়েছে। ল্যাবরেটরি টেস্টের পর ধর্ষণের আলামত জানা যাবে।

ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ছগির মিয়া জানান, ধর্ষণের ঘটনায় ভুক্তভোগী নিজেই একটি মামলা করেছেন।  ঘটনা তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।