অতিথি পাখিতে অপরূপ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার হাওর

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, | বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী ১৫, ২০১৮

অতিথি পাখিতে অপরূপ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার হাওর
ব্রাহ্মনবাড়িয়ার জেলার নাসিরনগর ও সরাইল এলাকার হাওরবেষ্টিত অঞ্চলে ভিড় জমিয়েছে হাজারো অতিথি পাখি। দেশি পাখির পাশাপাশি, নানা রঙের এসব অতিথি পাখির কলকাকলিতে মুখরিত হয়ে উঠেছে পুরো এলাকা। অতিথি পাখির আগমনে উচ্ছ্বসিত, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার প্রকৃতিপ্রেমী মানুষেরা।

নীলশির, লালশির, রাঙ্গামুরি এমন নামের সব অতিথি পাখি, ভিড় করেছে উপজেলার হাওরবেষ্টিত এলাকাগুলোতে। এর সাথে যোগ হয়েছে বালিহাঁস, পাতারি হাঁস, বৈকাল হাঁসসহ নানা পাখি। নাসিরনগরের মিদি হাওর, বাকলঙ্গন, বলবদ্ধ, দলেশ্বরী ও মেহেদি হাওরে বছরের এই সময়টিতে কয়েক প্রজাতির হাজারো অতিথি পাখির কলকাকলীতে মুখরিত হয়ে উঠে পুরো এলাকা।

জেলার সরাইল উপজেলার আকাশি, শাপলা বিল, তুলা বিল ও কটিয়া বিল অতিথি পাখিদের আরেক অভয়ারণ্য। এসব অঞ্চলে অতিথি পাখির সৌন্দর্য উপভোগ করতে আশপাশের জেলা থেকে হাজারও পাখিপ্রেমিক ছুটে আসছেন প্রতিনিয়ত।

দূর-দুরান্তর থেকে ঘুরতে আসা দর্শনার্থীরা জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর ও সরাইলের হাওরগুলোতে বছরের এই সময়ে অতিথি পাখির আগমন ঘটে। তা উপভোগ করা সত্যিই অপরূপ। যেন প্রকৃতির সঙ্গে হারিয়ে যেতে পারি আমরা। এসব অতিথি পাখি শিকার বন্ধে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান তারা।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগ জানায়, পাখিকে কেন্দ্র করে এখানে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি সৃষ্টি হয়েছে। এতে প্রচুর দর্শনার্থীর সমাগম হচ্ছে। আর বিচিত্র এসব অতিথি পাখির নামকরণ করেছেন এ দেশেরই পাখিপ্রেমী মানুষরা। শুধু নামকরণ নয়, অতিথি পাখি সুরক্ষায় তৎপর রয়েছে উপজেলার হাওর এলাকার মানুষেরা।