মাদ্রাসাছাত্রীকে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগে একজন গ্রেপ্তার

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি, | বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ৫, ২০১৮
মাদ্রাসাছাত্রীকে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগে একজন গ্রেপ্তার
লক্ষ্মীপুরের বশিকপুরে তের বছর বয়সী এক কিশোরী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার ভোরে দুলাল নামে একজনকে গ্রেপ্তারের পর দুপুরে আদালতে সোপর্দ করেছে পুলিশ। পরে নির্যাতিত ওই ছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এর আগে বুধবার রাতে নির্যাতিত কিশোরীর বাবা চন্দ্রগঞ্জ থানায় দুইজনকে আসামি করে মামলা করেন।

অভিযুক্ত দুলাল বশিকপুর ইউপির বড় রশিদপুর গ্রামের দ্বীন ইসলামের পুত্র এবং মুকবুল একই গ্রামের হাবিব উল্যার পুত্র।

পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার বিকাল বাড়ির পাশের ক্ষেতের আড়ায় লাগানো গাছে পানি দিচ্ছিল। এ সময় একই এলাকার মুকবুল ওই কিশোরীকে জোর করে পাশের বাগানে নিয়ে সহযোগী দুলালসহ পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এরপর বিষয়টি কাউকে বললে তাকেসহ পরিবারের সবাইকে মেরে ফেলার হুমকি দেয় অভিযুক্তরা। কিন্তু মুকবুল বসতঘরে গিয়েও তার বাবা ও ভাবীর সামনে কিশোরীকে মারধর করে তার কোলে দুলালকে বসিয়ে ভিডিও ধারণ করে। পরে ওই কিশোরী ঘটনাটি তার অভিভাবকদের খুলে বলে।

এ ব্যাপারে চন্দ্রগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জাফর আহমেদ বলেন, ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত আসামি দুলালকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অপর আসামি মুকবুলকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।