মেম্বারের নৌকায় বালকের আরোহন, সংঘর্ষে শতাধিক জখম

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি | রবিবার, এপ্রিল ২৯, ২০১৮
মেম্বারের নৌকায় বালকের আরোহন, সংঘর্ষে শতাধিক জখম
হবিগঞ্জের বাহুবলে দুই দল গ্রামবাসীর সংষর্ষে শিশুসহ শতাধিক লোক আহত হয়েছেন। আহতদের সিলেট, হবিগঞ্জ ও বাহুবল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার স্নানঘাট ইউনিয়নের মুদাহরপুর গ্রামে এ সংঘর্ষ হয়। অনুমতি ছাড়া এক কিশোরের নৌকায় চড়ার জের ধরে এ সংঘর্ষ হয়েছে বলে স্থানীয়রা জানায়।

প্রত্যদক্ষর্শীরা জানায়, উপজেলার স্নানঘাট ইউনিয়নের মুদাহরপুর গ্রামের নুরাজ মিয়ার পুত্র আব্দুল রহমান (১৫) বর্তমান মেম্বার আব্দুর রেজ্জাকের নৌকায় অনুমতি ছাড়া চড়লে মেম্বারের লোকজন তাকে মারধর করে। এমন সংবাদ কিশোর আব্দুর রহমানের স্বজন মাওলানা সালামের লোকজনের কাছে পৌঁছলে তারা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আব্দুর রেজ্জাকের পক্ষের লোকজনের ওপর হামলা চালায়। এ অবস্থায় আব্দুর রেজ্জাকের লোকজন পাল্টা হামলা চালালে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ পৌঁছে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনে।

আহতদের মাঝে মুদাহরপুর গ্রামের ইউসুফ আলীকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং একই গ্রামের হাবিবুর রহমান, আব্দুল বারিক ও সফর আলীকে হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও মুদাহরপুর গ্রামের হারুন মিয়া, ঠান্ডা মিয়া, মামুন মিয়া, আজিজুর, আহাদ আলী, মোশাহিদ, মোজাহিদ, আক্কাস আলী, নূর আলী, ইমরান আলী, আসাদ মিয়া, আব্দুন নূর, আব্দুল খালেক, আব্দুর রহমান, আরব আলী, মোহাম্মদ আলী, আব্দুস সালাম, জাকারিয়া (৮), আব্দুল কালাম, বশির মিয়া, বরকত আলী, নূরুল হক, এংরাজ ও আব্দুস ছোবানকে বাহুবল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করেছেন।

এ ব্যাপারে সহকারী পুলিশ সুপার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। বলেন, নৌকায় চড়া নিয়ে উভয় পক্ষের লোকজনের মাঝে সংঘর্ষ হয়েছিল। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।