নীলফামারীতে বাড়ীর সিমানাকে কেন্দ্র করে মারধর

বখতিয়ার ঈবনে জীবন,নীলফামারী প্রতিনিধি : | বৃহস্পতিবার, মে ৩, ২০১৮

নীলফামারীতে বাড়ীর সিমানাকে কেন্দ্র করে মারধর

নীলফামারীর ডোমার হরিণচড়ায় বাড়ীর সিমানাকে কেন্দ্র করে মারধরের ঘটনায় বৃদ্ধাসহ ২ মহিলা গুরুত্বর আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার হরিণচড়া ইউনিয়নের পশ্চিম হরিণচড়া ১নং ওয়ার্ড কলোনী পাড়া গ্রামে। সরেজমিনে যানাযায়, উক্তগ্রামের মৃত আব্দুল হক সাহেবে ছেলে জমসের আলীর বাড়ীর সিমানায় প্রতিবেশী দালালের ছেলে আব্দুল মান্নানের বাঁশঝাড় ভিতরে ডুকে পড়ে।

তাদের বাঁশটি কেটে নেয়ার তাগিত দিলে তারা কর্ণপাত না করে উল্টো তাদের গালিগালাছ করে এবং সেখানে তারা জমি পাবে বলে দাবী করে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৬ এপ্রিল বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় আব্দুল মান্নান বাড়ীর সিমানা মাপতে গেলে উভয় পক্ষে  বাকবির্তকের  সৃষ্টি হয়। এ সময় আব্দুল মান্নান তার স্ত্রী মোকছেদাসহ শারমিন, টুরি বেগম মিলে শাঠিশোটা ও দেশীয় অস্ত্রে সজ্জীত হয়ে জমেেসরের পরিবারের উপর হামলা চালায় বলে অভিযোগ উঠেছে।

তাদের ধারালো অস্ত্রদ্বারা জমসেরের স্ত্রী বৃদ্ধা মহসিনা বেগম (৫০) এর মাথায় আঘাত করলে মহসিনা রক্তাক্ত ও জখম হয়। তাকে বাচাঁতে বোন নাজমা বেগম(৩৫) এগিয়ে গেলে তাকেও বেধরক মারপিট করে তারা। পরে এলাকাবাসী গুরুত্বর অবস্থায় তাদের দুজনকে উদ্ধার করে ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। বিগত ৭ দিন হাসপাতালে চিকিৎসার শেষে মহসিনা বেগম কে উন্নত চিকিৎসার জন্য গত ২ মে কর্তব্যরত ডাঃ খায়রুল ইসলাম রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ট করেন। রংপুরে চিকিৎসা শেষে বিবাদীগনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করবে বলে ভুক্তভুগী পরিবার জানান।