কৃষি শ্রমিকের কাজ করে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছে শাহাদাত

ঝিনাইগাতী প্রতিনিধি | বুধবার, মে ৯, ২০১৮
কৃষি শ্রমিকের কাজ করে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছে শাহাদাত

শেরপুরের ঝিনাইগাতীর অদম্য মেধাবী শাহাদাত হোসেন কৃষি শ্রমিকের কাজ করে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছে। সে উপজেলার মালিঝিকান্দা ইউনিয়নের জুলগাঁও গ্রামের দিনমজুর আব্বাস উদ্দিনের ছেলে।

শাহাদাত উপজেলার ঘাগড়া দক্ষিণপাড়া এফ রহমান হাইস্কুল থেকে বিজ্ঞান শাখায় এসএসসি পরীক্ষা দিয়ে জিপিএ-৫ পেয়েছে।
 জানা গেছে, নবম শ্রেণিতে উত্তীর্ণের পর পিতার দারিদ্রতার কারণে শাহাদাতের পড়ালেখা প্রায় বন্ধই হয়ে যাচ্ছিল। এ সময় তার পাশে এসে দাঁড়ান ঝিনাইগাতীর স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন অসহায় ও দরিদ্র শিক্ষার্থী উন্নয়ন সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা শাহিন মিয়া। শাহিনের অনুপ্রেরণা আর বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সহযোগিতায় শুধুমাত্র প্রখর মেধার বলে সে এসএসসি পরীক্ষায় এ কৃতিত্ব অর্জন করে।

    শহাদাতের বাবা আব্বাস উদ্দিন দিনমজুরের কাজ করেন। জুলগাঁও গ্রামে বসতঘরের দুই শতাংশ জমি ছাড়া আর কোন জমি নেই তার। পরিবারের থাকার জন্য একটি মাত্র ঘরই আছে। বিদ্যালয়ের ছুটির দিনগুলোতে শাহাদাত অন্যের জমিতে কৃষি শ্রমিকের কাজ করেছে। এসএসসি পরীক্ষা শুরুর আগে এবং শেষ হওয়ার পর পুরোদমে বোরো ক্ষেতে শ্রমিকের কাজ করেছে। এভাবেই পড়ালেখার খরচ জুগিয়েছে সে।
    শাহাদাত বলে, ‘আমার বাবার কোন ধানি জমি নেই। অভাবের সংসার। আমি একটি ভাল কলেজে ভর্তি হতে চাই। এখন কলেজে ভর্তি হলে পড়ালেখার খরচ কীভাবে জোগাব তা নিয়ে দুঃশ্চিন্তায় আছি। আমার জীবনের লক্ষ্য লেখাপড়া শিখে একজন প্রশাসনিক কর্মকর্তা হওয়ার। যাতে দরিদ্র মানুষের সেবা করতে পারি। কিন্তু অর্থাভাবে লেখাপড়া বন্ধ হয়ে গেলে আমার ভবিষ্যত অন্ধকার হয়ে যাবে।’

    ঘাগড়া দক্ষিণপাড়া এফ রহমান হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. নুরুল ইসলাম বলেন, ছেলেটি ব্যাপক মেধাবী। সে নিজে কৃষি কাজ করে এমন রেজাল্ট করায় আমরা আনন্দিত। মেধাবী ছাত্র শাহাদাতের পড়ালেখা অব্যাহত রাখার জন্য তাকে সহযোগিতা করতে সমাজের সহৃদয়বান ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছে আবেদন জানিয়েছেন তিনি।