মাইকে সেহরি খেতে ডাকায় ঈমামকে মারধর

অনলাইন ডেস্ক | শনিবার, মে ১৯, ২০১৮
মাইকে সেহরি খেতে ডাকায় ঈমামকে মারধর

কুমিল্লায় ভোর রাতে মসজিদের মাইকে সেহরি খেতে ডাকায় ঘুম ভেঙে যাওয়ার অভিযোগ এনে ঈমামকে পিটিয়ে আহত করেছে মোশাররফ হোসেন (৩৫) নামে এক সৌদি প্রবাসী যুবক। শুক্রবার ভোর রাতে জেলার বুড়িচং উপজেলার সাদকপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় এলাকার মুসল্লিদের মাঝে উত্তেজনা বিরাজ করছে। শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর মসজিদে আগত মুসল্লিরা এ বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করেন। কিন্তু প্রধান ইমাম না থাকায় বিষয়টি সমাধান করা যায়নি। আগামী শুক্রবার বিষয়টি সমাধান করা হতে পারে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুড়িচং উপজেলার পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের সাদকপুর নোয়াপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সহকারী ইমাম মো. মাসুম (৩০) শুক্রবার ভোর রাতে প্রথম রমজানের সেহরি খাওয়ার জন্য মাইকে মুসল্লিদের আহ্বান জানান। এ সময় মসজিদের পূর্ব পাশের বাড়ির আবদুল বারেকের ছেলে সৌদি আরব ফেরত মোশাররফ হোসেন তার ঘুম ভেঙে যাওয়ার অভিযোগ এনে বাড়ি থেকে মসজিদে এসে ঈমামকে বেধরক মারধর করেন। এ সময় ঈমামের চিৎকারে স্থানীয়রা এসে তাকে উদ্ধার করে।

এ বিষয়ে ওই মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো. নূরুল ইসলাম জানান, গত ৬/৭ মাস পূর্বে সহকারী ঈমাম হিসেবে মো. মাসুমকে নিয়োগ দেয়া হয়। তিনি মসজিদে থেকে মুসল্লিদের প্রত্যেক ওয়াক্ত নামাজ পড়ান। পবিত্র রমজান মাসে সেহরির সময় মাইকে ডেকে মুসল্লিদের ডেকে দেয়ার জন্য ঈমামকে বলা হয়েছিল। শুক্রবার ভোর রাতে ঈমাম সাহেব ঘুম থেকে ওঠার জন্য মাইকে আহ্বান জানান। কিন্তু ঘুম ভেঙে যাওয়ার অভিযোগ এনে সৌদি আরব থেকে দেশে আসা মোশাররফ যেভাবে তার উপর হামলা ও মারধর করেছে তা দুঃখজনক।

তিনি আরও জানান, বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মীমাংসা না হলে আইনগত পদক্ষেপ নেয়া হবে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মোশারফের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

সন্ধ্যায় বুড়িচং থানার ওসি মনোজ কুমার দে জানান, এ বিষয়ে এখনও কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।