মজুরির দাবিতে মধ্যরাতে থানায় শ্রমিকরা

অনলাইন ডেস্ক | বৃহস্পতিবার, মে ৩১, ২০১৮
মজুরির দাবিতে মধ্যরাতে থানায় শ্রমিকরা

ঠাকুরগাঁওয়ে সারাদিন কাজ করে মজুরি না পেয়ে মধ্য রাতে খানায় অভিযোগ করেছেন ৩৭ কৃষি শ্রমিক। তাদের বাড়ি বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার চাড়োল পতিলা ভাষা গ্রামে। বুধবার দিবাগত রাত একটার দিকে শ্রমিকরা বালিয়াডাঙ্গী থানায় অবস্থান নেন।

শ্রমিকরা জানায়, ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামের  খলিলুর রহমান ওরফে টপ হাজি ওরফে ডবল হাজীর ধান কাটার কাজ করেন তারা। তাদেরকে বিঘা প্রতি ২ হাজার ৩০০টাকা হিসাবে চুক্তিভিত্তিতে কাজে নেন জমির মালিক। বুধবার সারাদিনে ১২বিঘা জমিতে ধান কাটার পর টাকা চাইলে তিনি  মালিক খলিলুর টাকা দিতে অপারগতা জানান।

শ্রমিকদের অভিযোগ, তাদের মজুরির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২৭ হাজার ৬শ টাকা। এরমধ্যে ৫ হাজার টাকা অগ্রিম দিয়ে ধান কাটতে বলেন মালিক। বাকী ২২ হাজার ৬শ টাকা কাজ শেষে পরিশোধ করার কথা থাকলেও পরিশোধ করেনি।এমতাবস্থায় রাত ১২ টা পর্যন্ত তার বাড়ীর সামনে অবস্থান  নিলেও কাজ হয়নি। পরে নিরুপায় হয়ে শ্রমিকরা থানায় অভিযোগ করেন। থানা পুলিশ তাৎক্ষণিক একটি অভিযোগ রুজু করেন। ৩৭ শ্রমিকের পক্ষে মনসুর আলী এ অভিযোগ করেন।

এ ব্যপারে খলিল হাজির ছেলে নজরুল ইসলাম জানান, টাকা দিতে কিছুদিন সময় লাগতে পারে। থানার অভিযোগ করার ব্যপারে তিনি জানান, থানায় জানিয়ে কোন লাভ হবে না।

বালিয়াডাঙ্গী থানার  ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)এবিএম সাজেদুল ইসলাম বলেন, আমি অভিযোগ পেয়েছি। এটি একটি অমানবিক কাজ করেছেন তিনি।তার বিরুদ্ধে তড়িৎ ব্যবস্থা নিতে একজন কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।