মাঠে ছাগল বাঁধতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার কিশোরী

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | বৃহস্পতিবার, জুন ৭, ২০১৮
মাঠে ছাগল বাঁধতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার কিশোরী

গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার নলডাঙ্গা ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামে এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এ ঘটনায় নির্যাতিতার দাদি বাদী হয়ে অভিযুক্ত যুবকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছেন।

নির্যাতিতা কিশোরী ও তার পরিবারের অভিযোগ, বুধবার বেলা ১১টার দিকে ওই কিশোরী বাড়ির পাশের মাঠে ছাগল বাঁধতে যায়। এসময় নদীর ধারে ওঁৎ পেতে থাকা একই গ্রামের সুজন মিয়া মেয়েটির পেছন থেকে ওড়না টেনে খুলে নিয়ে তার মুখ চেপে ধরে আখ ক্ষেতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। তারপর মেয়েটির চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এলে অভিযুক্ত যুবক পালিয়ে যায়। মেয়েটিকে বাড়িতে নিয়ে এলে তার শরীর থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। পরে বিকালে আশংকাজনক অবস্থায় তাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অভিযুক্ত সুজন একই গ্রামের আজম আকন্দের ছেলে।

চিকিৎসকরা জানান, কিশোরীটির শরীর থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হওয়ায় তার সার্বিক অবস্থা আশঙ্কামুক্ত নয়।

সাদুল্ল্যাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বোরহান উদ্দিন ঢাকাটাইমসকে জানান, সাদুল্যাপুর উপজেলার নলডাঙ্গা ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামে এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। তাকে আশংকাজনক অবস্থায় গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ ঘটনায় কিশোরীটির দাদি বাদী হয়ে সুজনকে আসামি করে রাতে মামলা করেছেন।