এশিয়া কাপ প্রমিলা ক্রিকেট বিজয়ী শেরপুরের জ্যোতিকে সংবর্ধনা

শেরপুর প্রতিনিধি : | বৃহস্পতিবার, জুন ১৪, ২০১৮
এশিয়া কাপ প্রমিলা ক্রিকেট বিজয়ী শেরপুরের জ্যোতিকে সংবর্ধনা
ক্রিকেট দুনিয়ার ইতিহাস গড়েছে বাংলাদেশের নারী ক্রিকেট দল। এশিয়া কাপে ৬ বারের চ্যাম্পিয়ন ভারতকে তিন উইকেটে হারিয়েছে লাল সবুজ প্রমিলা বাহিনী। আর এই জয়ের অন্যতম নায়ক শেরপুরের মেয়ে নিগার সুলতানা জ্যোতি। সেইসাথে সারা বিশ্বে দেশের দূতি ছাড়ালো শেরপুরের এই প্রমিলা ক্রিকেটার।
প্রমিলা ক্রিকেটার জ্যোতির নৈপুন্যে শেরপুর জেলা ক্রিয়া সংস্থা থেকে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। ১৩ জুন বুধবার দুপুরে জ্যোতি শেরপুর প্রবেশের সময় শহরের প্রবেশদ্বার কানাশাখোলা থেকে শতশত মোটরসাইকেল সোভাযাত্রার মাধ্যমে স্বাগত জানানো হয়।
পরে তাকে শহরের চরকবাজারস্থ শহীদ মিনার চত্বরে অনুষ্ঠিত সংর্বধনায় জেলার বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও ক্রেট প্রদান করা হয়। সংবর্ধনায় প্রধান অতিথি ছিলেন শেরপুর সদর আসনের সাংসদ ও জাতীয় সংসদের হুইপ মো. আতিউর রহমান আতিক। হুইপ এসময় জ্যোতির এ কৃতিত্বে জেলা ক্রিড়া সংস্থার মাধ্যমে এক লক্ষ টাকা অনুদান ঘোষনা করেন।
এসময় শেরপুরের জেলা প্রশাসক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন, পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীমসহ অন্যান্য প্রশাসনিক কর্মকর্তা, আওামীলীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী এবং সর্বস্তরের জনগণ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, নিগার সুলতানা জ্যোতি ১ আগস্ট ১৯৯৭ সালে শেরপুর জেলায় জন্ম গ্রহণকারী বাংলাদেশের প্রথিতযশা প্রমিলা ক্রিকেটার। শেরপুর শহরের রাজবল্লভপুর মহল্লার সিরাজুল হক ও সালমা দম্পতির মেয়ে জ্যোতি। জ্যোতি এক ভাই-দুই বোনের মধ্যে সবার ছোট।
বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য তিনি। দলে তিনি মূলতঃ উইকেট-কিপারের দায়িত¦ পালন করে থাকেন। পাশাপাশি ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবেও নিগার সুলতানা দলে ভূমিকা রাখছেন।
২০১৫ সালে ৬ অক্টোবর স্বাগতিক পাকিস্তানের বিপক্ষে তার ওডিআই অভিষেক ঘটে। করাচীতে অনুষ্ঠিত ওই খেলায় তিনি দু’টি বাউন্ডারি সহযোগে অপরাজিত ৩০* রান সংগ্রহ করেছিলেন। এর পূর্বে ২০১৬ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর  একই দলের বিপক্ষে করাচীতে অনুষ্ঠিত টি-২০ আর্ন্তজাতিকে অভিষিক্ত হন তিনি।
২০১৬ সালে ১০ ফেব্রুয়ারি আইসিসি বিশ্ব টি-২০ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের লক্ষ্যে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড কর্তৃক ঘোষিত মহিলা দলে তিনিও অন্যতম সদস্য মনোনীত হন। ২০১৬ সালে ১৫ মার্চ বেঙ্গালুতে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী খেলায় ভারতের বিপক্ষে অপরাজিত ২৭* রান করেন ।
সর্বশেষ গত ১০ জুন মালেশিয়ায় অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপ নারী ক্রিকেট ফাইনালে বাংলাদেশ দলের উইকেট কিপার জ্যোতি শক্তিশালী ভারতের বিরুদ্ধে ২৪ বলে ২৭ রান করে। এতে এক অভারেই নেয় ১৬ রান। এই রানেই বাংলাদেশ দলের জয় নিশ্চিত হয়।