টাঙ্গাইলে শিশুকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ

| বৃহস্পতিবার, জুলাই ৫, ২০১৮
টাঙ্গাইলে শিশুকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ

টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারে ১ম শ্রেণির ছাত্রী ৬ বছরের শিশুকে যৌন নিপীড়নের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বুধবার বিকেলে নিপীড়িত শিশুটির বাবা বাদী হয়ে যৌন নিপীড়ক সুভাষ মন্ডলকে (৪৫) আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দেলদুয়ার থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

অভিযুক্ত সুভাষ উপজেলার ফাজিলহাটি ইউনিয়নের মেরুয়াঘোনা গ্রামের মাঠু মন্ডলের ছেলে।

মামলার অভিযোগ, গত ২৭ জুন সকাল ৯টার দিকে শিশুটি বিদ্যালয়ের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিল। পথে লম্পট সুভাষ মন্ডল শিশুটিকে টেনে পাশের পাট ক্ষেতের নিয়ে ওই বর্বরাচিত নিপীড়ন চালায়। এ সময় শিশুটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে সুভাষ পালিয়ে যায়। ঘটনাটি প্রথমে সামাজিকভাবে মীমাংসার নামে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করা হলেও রহস্যজনক কারণে ঘটনাটি অমীমাংসিত রয়ে যায়।

শিশুটির বাবা ভ্যানচালক জানান, আমার নাবালিকা মেয়ের সঙ্গে যে অপকর্ম করা হয়েছে আমি তার উপযুক্ত বিচার চাই। আমার মেয়ে যাতে এ ঘটনা প্রকাশ করতে না পারে এ জন্য তাকে খুন করারও হুমিক দেন ওই লম্পট সুভাষ মন্ডল বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

অভিযুক্ত সুভাষ মন্ডলের বাড়িতে গিয়ে পাওয়া যায়নি। যদিও তার স্ত্রী এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

সুভাষ মন্ডলের স্ত্রী বলেন, আমার স্বামী যে অন্যায় করেছে তা ক্ষমার অযোগ্য। এমন অন্যায়ের জন্য আমরা শিশুটির পরিবারের কাছে হাতজোর করে ক্ষমা চেয়েছি। এমন কর্মকাণ্ডের জন্য আমরা সবার কাছে ক্ষমা চাই। আমরা খুবই হতদরিদ্র। আমার স্বামীর কিছু হলে পরিবারটি পথে বসে যাবে।

এ বিষয়ে দেলদুয়ার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহিরুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় আমি অভিযোগ পেয়েছি। অভিযুক্তের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছে। তবে সে পলাতক থাকায় তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। অভিযান অব্যাহত রয়েছে।