মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জে নিহত ২

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | রবিবার, জুলাই ৮, ২০১৮
মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জে নিহত ২
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে মেঘনা নদীতে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ঘটনায় এ পর্যন্ত দুইজন নিহত হয়েছেন। শনিবার (৭ জুলাই) সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার দুর্গম নদী বেষ্টিত কালাপাহাড়িয়া মধ্যারচর গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। শনিবার সন্ধ্যায় নিহত হয় সুজন (৪৫)ও রোববার (৮ জুলাই) দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নিহত হন রোজিনা (৩৮)। নিহত রোজিনা মধ্যারচর গ্রামের বাবুল মিয়ার স্ত্রী।

এদিকে সুজন নিহত হওয়ার ঘটনায় সুজনের ভাই রবি মিয়া বাদী হয়ে বাবুল, কবির, হযরত আলী সহ ৩১ জনের নাম উল্লেখ করে আড়াইহাজার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার কালাপাহাড়িয়া মধ্যারচর এলাকায় চাই দিয়ে মাছ ধরা নিয়ে ওই এলাকার মো: সুজনের সঙ্গে একই এলাকার হযরত আলীর সঙ্গে বাগবিতন্ডার ঘটনা ঘটে। এই ঘটনার জের ধরে হযরত আলী ও তার ছেলে স্বপন, কবির, বাবুল ও জজ মিয়ার লোকজন ধারালো অস্ত্র নিয়ে মো: সুজনের ওপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এসময় দু’পক্ষের লোকজন ধারালো অস্ত্র টেটাঁ, বল্লমসহ দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। দু’পক্ষের সংঘর্ষে সুজন নিহত হন এবং আহত হন নিহত সুজনের ভাই বাবুল, শফিকুল, হাসান, চাচা স্থানীয় মেম্বার লিটন, আছমা, রোজিনা ,হযরত আলী, আবুল হাসানসহ ১০ জন। আহতদের মধ্যে মূমূর্ষ অবস্থায় রোজিনা আক্তার(৩৮), হযরত আলী (৬৫) ও আছমা আক্তার (২৮)কে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। অন্যান্যদের স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়।

এ জোড়া হত্যাকান্ডের ঘটনায় কালাপাহাড়িয়ার মধ্যারচর এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। যে কোন সময় এ দুই পক্ষের মধ্যে পুনরায় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা করছে এলাকাবাসী। পুনরায় সংঘর্ষ এড়াতে আড়াইহাজার থানার ওসির নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক অতিরিক্ত পুলিশ এলাকায় মোতায়েন রয়েছে।

আড়াইহাজার থানার ওসি এম এ হক জানান, জোড়া হত্যাকান্ডের ঘটনায় মধ্যারচর এলাকার থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ এলাকায় মোতায়েন রয়েছে। তবে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রনে রয়েছে। তিনি আরো জানান, সুজন হত্যার ঘটনায় মামলা হয়েছে। ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের জন্য বিভিন্ন স্থানে পুলিশের অভিযান চলছে।