যৌতুকের দাবিতে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর হাত কর্তন মামলায় স্বামী গ্রেফতার

ঝিনাইগাতী প্রতিনিধি ঝিনাইগাতী প্রতিনিধি | মঙ্গলবার, জুলাই ১০, ২০১৮
যৌতুকের দাবিতে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর হাত কর্তন মামলায় স্বামী গ্রেফতার

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলা সদরের কসাইপাড়া গ্রামে যৌতুকের দাবিতে অন্তঃসত্ত্বা কুলসুম বেগম (১৯) নামে এক গৃহবধূর হাত কেটে দেয়ার মামলায় স্বামী লিটনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত সোমবার রাতে জেলার নতুন বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে শেরপুর সদর সার্কেল আমিনুল ইসলাম প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত এক বছর আগে ঝিনাইগাতী উপজেলা সদরের লিটন মিয়ার সাথে কুলসুম বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবিতে কুলসুমের উপর চাপ দিতে থাকে লিটন মিয়া।

কুলসুম তার স্বামীর যৌতুকের দাবি পুরন করতে না পারায় কুলসুমকে দিয়ে তার স্বামী দেহ ব্যবসা করানোর চেষ্টা করে। স্বামীর কথামতো দেহ ব্যবসায় রাজি না হলে গত ১৩ জুন বিকেলে কুলসুমের স্বামী লিটন মিয়া ও তার অন্যান্য ভাইয়েরা কুলসুমের উপর অমানুষিক নির্যাতন চালায়। এক পর্যায়ে লিটন ধারালো দা দিয়ে কুলসুমের ডান হাতের কব্জির উপর থেকে কেটে বিচ্ছিন্ন করে দেয়।

এ ঘটনায় ৩জুলাই কুলসুম বেগম বাদি হয়ে শেরপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে স্বামী লিটনসহ ৬ জনের নামে মামলা দায়ের করেন।