কলমাকান্দায় মুক্তিযোদ্ধা সেতুটি ভেঙ্গেপড়ায় জনদুর্ভোগ চরমে

এস.এম রফিক/রিনা হায়াত,কলমাকান্দা | শনিবার, জুলাই ১৪, ২০১৮
কলমাকান্দায় মুক্তিযোদ্ধা সেতুটি ভেঙ্গেপড়ায় জনদুর্ভোগ চরমে

নেত্রকোনার কলমাকান্দায় খারনৈ ইউনিয়নের ধেনকী নদীর উপর নির্মিত কাঠের সেতুটি সম্প্রতি পাহাড়ি ঢলে অতিরিক্ত পানির চাপে ভেঙে যায়। ফলে ঐ অঞ্চলের ১২টি গ্রামের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকজনদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, প্রায় তিন মাস আগে সাড়ে ৪ লক্ষ টাকা ব্যয়ে উত্তর রানীগাঁও গ্রামের ধেনকী নদীর উপর এলাকার মুক্তিযোদ্ধা হারুণ অর রশিদ, খারনৈ ইউপি চেয়ারম্যান ওবায়দুল হক, এবিএম সিদ্দিক, ইউপি সদস্য মো. আসাদ মিয়া, মো. আফতাব উদ্দিন, সাইফুল ইসলাম, নুরুল ইসলাম সহ এলাকার ৩০ জনের প্রচেষ্টায় মুক্তিযোদ্ধা সেতু নামে একটি সেতু নির্মাণ করা হয়। সেতুটি সম্প্রতি পাহাড়ি ঢলে অতিরিক্ত পানির চাপে যাতায়াতাতের একমাত্র পথ ঐ সেতুটি ভেঙে পড়ায় এলাকার কৃষক, শিক্ষার্থী, শিশু ও বৃদ্ধসহ চিকিৎসা নিতে যাওয়া রোগিরা চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

বরদল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাফিজুর রহমান আনসারী বলেন, উত্তর রানীগাও, ধেনকী, গোড়াগাঁও, খারনৈ, চেংনী, চৈতা নগর, নলছাপ্রা ও বিশ্বনাথপুরসহ ১২টি গ্রামের ছাত্র-ছাত্রীদের চলাফেরার সুবিদার্থে ঐ সেতুটি জরুরী ভিত্তিতে নির্মাণ করা প্রয়োজন। কৃষক আবু তাহের আক্ষেপ করে বলেন, কয়েকদিন আগে এই কাঠের সেতুটি নির্মাণ হওয়ায় আমরা উপকৃত হয়েছিলাম কিন্তু হঠাৎ পাহাড়ি ঢলে সেতুটি ভেঙে পড়ায় আমাদের উৎপাদিত কৃষিপণ্য নিয়ে বিভিন্ন হাট বাজারে যাতায়াত করতে খুবই অসুবিধা হচ্ছে।

খারনৈ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ওবায়দুল হক জনান, সেতুটি সরকারি উদ্যোগে স্থায়ী নির্মাণের লক্ষ্যে আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। এরই প্রেক্ষিতে কিছুদিন আগে সয়েলটেস্ট করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরিফুজ্জামান বলেন, পাহাড়ি ঢলে মুক্তিযোদ্ধা সেতুটি ভেঙে পড়ার খবর পেয়েছি। দ্রুত ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন পাঠানোর প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।