স্ত্রীর স্বীকৃতি দাবিতে প্রেমিকার আমরণ অনশন

মাদারীপুর প্রতিনিধি, | বুধবার, জুলাই ১৮, ২০১৮

স্ত্রীর স্বীকৃতি দাবিতে প্রেমিকার আমরণ অনশন
মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার কদমবাড়ী ইউনিয়নে স্ত্রীর স্বীকৃতি দাবিতে চারদিন ধরে অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন অঞ্জনা নামে এক নারী। তিনি  উপজেলার ৭নং ওয়ার্ডের ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য বাবুল মজুমদারের বড় ছেলে মিহির মজুমদারের স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে এ আমরণ অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন।

স্ত্রীর স্বীকৃতি না দিলে আত্মহত্যা করার হুমকি দিয়েছেন তিনি। তিনি অনশন শুরু করায় ওই পরিবারের সদস্যরা বাড়ি থেকে পালিয়ে গেছেন।

অনশনকারী অঞ্জনা মণ্ডল জানান, বাবুল মজুমদারের ছেলে মিহির মজুমদারের সাথে তাদের দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। গত ২০১৭ সালের ১৫ নভেম্বর রাজৈর কালীমন্দিরের পুরোহিতের মাধ্যমে তাদের বিয়ে হয়। এরপর ২০১৭ সালের ৪ ডিসেম্বর মাদারীপুর জজকোর্টে গিয়ে কোর্ট ম্যারেজ করেন তারা।

এখন বাবুল মজুমদার বিষয়টি মেনে নিতে চাচ্ছেন না। ধামাচাপা ও তালাক দেয়ার জন্য তাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করছেন।

নিরুপায় হয়ে তিনি স্ত্রীর অধিকার আদায়ে স্বামীর বাড়িতে আমরণ অনশন করছেন।

তিনি আরও জানান, স্থানীয় সালিশের মাধ্যমে কয়েক মাস আগেও কয়েকদফা বৈঠক বসলেও নানা অজুহাতে কালক্ষেপণ করছে তার স্বামীর পরিবার।

এনিয়ে সোমবার সন্ধ্যায় ও মঙ্গলবার বিকালে এলাকার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বিধান বিশ্বাস ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা দুই দফা সালিশ বৈঠক বসেন।

বৈঠকে মিহির মজুমদারের পরিবারের লোকজন হাজির না হওয়ায় অঞ্জনা মন্ডলকে ওই বাড়িতে থাকার কথা বলেন তারা।

এ বিষয়ে জানতে মিহির মজুমদারের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বিধান বিশ্বাস বলেন, আমরা সালিশ বৈঠকে বসেছিলাম। কিন্তু ছেলের পক্ষ হাজির না হওয়ায় সমাধান করতে পারিনি। তবে মেয়েটি স্ত্রীর অধিকার পাক। এটা আমরা কামনা করি।

রাজৈর থানার ওসি জিয়াউল মোর্শেদ জানান, এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কেউ কোন অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।