ঝকঝকে সাদা দাঁতের জন্য অবশ্যই মেনে চলুন ৯টি নিয়ম

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | শনিবার, জুলাই ২১, ২০১৮
ঝকঝকে সাদা দাঁতের জন্য অবশ্যই মেনে চলুন ৯টি নিয়ম
ঝলমলে সাদা দাঁত যেমন সুস্বাস্থ্যের প্রতীক তেমনই তা ব্যক্তিত্বকেও করে তোলে আকর্ষণীয়। দাঁত হলদেটে হওয়া নিয়ে অনেকেই চিন্তিত থাকেন। দাঁত সুস্থ রাখার জন্য বিভিন্ন পণ্যের পেছনে টাকা খরচ করেন। কিন্তু দৈনন্দিন জীবনে কিছু কাজ নিয়মিত করলেই দাঁত সহজে হলুদ হওয়ার সুযোগ পায় না। জেনে নিন এমনই কিছু কাজের কথা-

১) দাঁত সাদা রাখতে পরিবর্তন করুন খাদ্যাভ্যাস

নিয়মিত রঙ চা, কোমল পানীয় পান এবং ধূমপান করলে নিঃসন্দেহে আপনার দাঁত হলদেটে হয়ে যাবে। যেসব খাবারের রং গাড়, সেগুলো খেলেও দাঁতের রঙ নষ্ট হতে পারে। এসব খাবার খাওয়ার পর দাঁত ব্রাশ করুন অথবা একটা আপেল চিবিয়ে খেতে পারেন।

২) নিয়মিত টুথব্রাশ পাল্টান

প্রতি দুই থেকে তিন মাস পর পর টুথব্রাশ পাল্টান। এছাড়া টুথব্রাশের ব্রিসল দেখতে এলোমেলো মনে হলেও তা পাল্টে ফেলাই ভালো। এছাড়া টুথব্রাশ পেন্সিলের মতো ধরে ব্রাশ করুন, এতে দাঁতের ওপর অতিরিক্ত চাপ পড়বে না।

৩) জিহবা পরিষ্কার করুন

প্রতি সকালে জিহবা পরিষ্কার করুন। এর জন্য আলাদা স্ক্র্যাপার কিনতে পাওয়া যায়। এছাড়া কিছু টুথব্রাশের পেছনের অংশটিতেও জিহবা পরিষ্কারের একটি অংশ থাকে। জিহবার ব্যাকটেরিয়া থেকে দাঁতের ক্ষতি হতে পারে। এছাড়া এতে মুখের দুর্গন্ধও কমানো যায়।

৪) ‘ডিটারজেন্ট’ ধরনের খাবার খান

না, সাবান খেতে হবে না আপনাকে। এমন কিছু খাবার আছে যা দাঁতের জন্য ডিটারজেন্টের মতো কাজ করে। সাধারণত কচকচে খাবারগুলো দাঁত পরিষ্কার রাখতে উপকারী। এর মাঝে রয়েছে আপেল, গাজর, সেলেরি এবং পপকর্ন।

৫) সপ্তাহে একদিন বেকিং সোডা ব্যবহার করুন

ঘরোয়া উপায়ে দাঁতের দাগ দূর করতে বেকিং সোডার জুড়ি নেই। টুথপেস্টের মতই কিছুটা বেকিং সোডা দিয়ে দাঁত ব্রাশ করুন, কিন্তু সপ্তাহে একদিনের বেশি নয়। এছাড়া মাঝে মাঝে লবণ দিয়েও দাঁত মাজতে পারেন।

৬) মাউথওয়াশ ব্যবহার করুন

অবশ্যই অ্যালকোহলমুক্ত মাউথওয়াশ ব্যবহার করুন। কারণ অ্যালকোহলযুক্ত মাউথওয়াশ মুখের ভেতরটা শুকিয়ে ফেলে, এতে ব্যাকটেরিয়া সহজেই দাঁতকে আক্রমণ করে ও দাঁতে দাগ ফেলে।

৭) নিয়মিত ফ্লসিং করুন

নিয়মিত ফ্লসিং করুন। বিশেষ করে এমন সব খাবার খাওয়ার পর যেগুলো দাঁতের সাথে লেগে থাকে। তিনবেলা খাবার পরই ফ্লসিং করতে পারেন। এতে দাঁতের মাঝে ব্যাকটেরিয়া লুকিয়ে থাকার সম্ভাবনা কমে।

৮) সকালে একবার, রাত্রে একবার

সকালে ঘুম থেকে উঠে এবং রাত্রে ঘুমাতে যাবার আগে অবশ্যই ব্রাশ করুন। এই দুটো সময় সবচেয়ে জরুরী। ঘুমের মাঝে মুখ শুকিয়ে যায়, ফলে প্লাক জমে। এ কারণে ঘুমাতে যাবার আগে মুখ থেকে ব্যাকটেরিয়া পরিষ্কার করা ভালো, এতে প্লাক জমার সুযোগ কম পায়। অন্যদিকে সকাল নাগাদ জমে থাকা প্লাক পরিষ্কার করে ফেলাও জরুরী, এতে মুখে দুর্গন্ধ হয় না।

৯) গাড়  লিপস্টিক

নারীরা দাঁত সাদা দেখাতে বিশেষ রঙের লিপস্টিক ব্যবহার করতে পারেন। কোরাল বা গাড় লাল রঙের লিপস্টিক দিলে দাঁত উজ্জ্বল সাদা দেখায়। অন্যদিকে হালকা বা ন্যুড রঙের লিপস্টিকে দাঁত হলদেটে দেখায়।

সুত্র: রিডার্স ডাইজেস্ট