পূর্ব শত্রুতার জেরে বাড়ীঘর ভাংচুর, লুটপাট, হামলা

মোঃ ফয়সাল হাওলাদার | শনিবার, জুলাই ২৮, ২০১৮
পূর্ব শত্রুতার জেরে বাড়ীঘর ভাংচুর, লুটপাট, হামলা
মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে পূর্ব শত্রুতার জেরে বাড়ীঘর ভাংচুর, লুটপাট ও হামলার ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার কোলা ইউনিয়নের নন্দনকোনা গ্রামের শহিদুল শেখের বসত বাড়ীতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট  করে একই গ্রামের  মোঃ বাচ্চু মিয়া ও তার সন্ত্রাসী বাহীনি। সে  কোলা ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য ও নন্দনকোলা গ্রামের ইমান আলী শেখের পুত্র।  এ ঘটনায় বাছের (৪০), সুমন (৩০) নামে দ্ইুজন আহত হয়েছে। গতকাল শনিবার বিকাল অনুমান ৫টায় উপজেলার কোলা ইউনিয়নের নন্দনকোনা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।  

জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবৎ নন্দনকোনা গ্রামের শহিদুল শেখ এবং মোঃ বাচ্চু মিয়াগংদের সাথে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। সেই বিরোধের জেরে গতকাল বিকাল ৫ টার সময় ইউপি সদস্য মোঃ বাচ্চু মিয়ার ভাতিজা সুজন ২০/২৫ টি মোট সাইকেল নিয়ে মোহড়া দিয়ে নন্দনকোণা হেচারির সামনে বাছের  ও সুমনকে একা পেয়ে মারধর শুরু করলে তারা দৌড়ে তাদের বাড়ীতে গিয়ে উঠে। পরে সুজনসহ ২০/২৫ জন লোক বাড়ী ঘর ভাংচুর, লুটপাট এবং বাড়ীর মহিলাদের উপর হামলা চালিয়ে ঘরের আসবাব পত্র, টিভি, ফ্রিজ ভাংচুর করে। ভাচুরের বিষয়ে শহিদুল শেখ মুঠোফোনে থানায় খবর দিলে সিরাজদিখান থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

হামলার স্বীকার শহিদুল শেখ জানান, পূর্ব শত্রুতার জেরে আমার বাড়ী ঘরে ভাংচুর করে বাচ্চু মেম্বারের ভাতিজাসহ তার সন্ত্রাসী বাহীনির লোকজন। আমার ব্যবসার ৩ লাখ টাকা ঘরে ছিল। তারা সেই টাকা বাড়ীঘর  ভাংচুর করে নিয়ে যায়। আমার বাড়ীতে থাকা মহিলাদেরকেও মারধর করে তারা। এবিষয়ে থানায় কোন লিখিত অভিযোগ করেছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি জানান, আমি সিরাজদিখান থানায় মৌখিক ভাবে জানিয়েছি। লিখিত কোন অভিযোগ করিনি।

কোলা ১নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মোঃ বাচ্চু মিয়ার সাথে মুঠোফোনে বারংবার কল করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

সিরাজদিখান থানার পুশিল পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। একপক্ষ থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।