যে আচরণগুলো প্রকাশ করে সঙ্গি ‘প্রতারণা’ করছে আপনার সাথে !

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | সোমবার, জুলাই ৩০, ২০১৮
যে আচরণগুলো প্রকাশ করে সঙ্গি ‘প্রতারণা’ করছে আপনার সাথে !
আজকাল সাবিনা কেমন জানি বদলে গেছে। মোবাইলেও ঠিকমত কথা বলছেনা, দেখাও ঠিকমত করা হচ্ছেনা। কেমন জানি নিজেকে একটু আড়ালে রাখতে পছন্দ করছে সে। সাবিনার হঠাৎ বদলে যাওয়াটা কিছুতেই মানতে পারছেনা আকাশ।

উপরের ঘটনাটা প্রতীকী তবে এ ধরনের ঘটনা আজকাল খুব বেশি সাধারণ। ভালোবাসাটা যেন আজকাল বড্ড বেশি ফ্যাঁকাসে হয়ে গেছে। প্রেম বা দাম্পত্য জীবনে প্রতারণা শব্দটা যেন এখন নিত্য সঙ্গী। আচ্ছা, আপনার খুব কাছের মানুষটা কি বদলে গেছে? তার কথা বলার ধরন কিংবা হালচাল কি কিছুটা বেমানান লাগছে? তবে আজ জেনে নিন কোন আচরণগুলো প্রকাশ করে যে আপনার সঙ্গী আপনার সঙ্গে প্রতারণা করছে।

তোমাকে ভালোবাসি তবে আমাদের একসাথে থাকা সম্ভব নয়ঃ
আপনি যদি এ ধরনের বাক্য কখনো আপনার সঙ্গীর কাছ থেকে শুনে থাকেন তবে জেনে নিন এটি আপনার সম্পর্কের জন্য একটি সতর্ক বার্তা। সাধারণত ধারণা করা হয় আপনার সঙ্গী তখনই এমন কিছু বলবে যখন সে আপনাকে পছন্দ করতো বা ভালোবাসতো কিন্তু বর্তমানে তার ভালোবাসার সেই সত্যি আবেগটা খুঁজে পাচ্ছেনা।

ডাক্তাররা এর জন্য এন্মেসিয়া সহ কিছু হরমনকে দায়ী করে যার প্রভাবে মানুষ সম্পর্কে ভরসা খুঁজে পায়না এবং নতুন সম্পর্কে জড়াতে চায়।
আপনি যদি এ আর্টিকেল পড়েন এবং আপনার মনেও যদি এমন কিছু সংশয় তৈরি হয় যে আপনি আসলে আপনার সঙ্গীর সাথে সুখী নন তবে সম্পর্কটা শেষ করার আগে কারন হিসেবে এই ব্যাপারগুলো আছে কিনা খুঁজে দেখুন-

তার খুব বেশি সীমাবদ্ধতা। আপনার আবেগকে মুল্য না দেয়া। আর্থিক দিক দিয়ে অশান্তি সৃষ্টি করা। আপনাকে পরিমিত সময় না দেয়া। অতিরিক্ত সময় কাজে থাকা।

এই কারনগুলো হলে দুজন মিলে আলোচনা করাই ভালো।

প্রিয় পাঠক, আপনার সঙ্গী যদি আপনাকে এমন কিছু বলে যে আপনাকে ভালবাসে কিন্তু একসাথে থাকা সম্ভব নয় তবে বুঝে নিবেন আপনার সম্পর্কটি ঠিক নেই। নিজের কোন ভুল আছে কিনা খুঁজে দেখুন আর যদি নিজের কোন ত্রুটি খুঁজেই না পান তবে বুঝে নিবেন আপনার সঙ্গী আপনার সাথে প্রতারণা করার চেষ্টা করছে।

আমরা কেবলই বন্ধুঃ

এই বাক্যটিও আরেকটি বহুল পরিচিত বাক্য যা প্রতারক সঙ্গী ব্যবহার করে থাকেন। আপনার সঙ্গী যদি নতুন নতুন বন্ধুদের সাথে খুব বেশি সময় দেয়া পছন্দ করে যা স্বাভাবিক বন্ধুত্বের চেয়েও একটু বেশি মনে হয় তবে বুঝবেন তিনি আপনার চেয়ে তাদের সাথেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করে। আর যদি বারবার আপনাকে এই কথাই বুঝায় যে আমরা বন্ধুর বেশি কিছু না এর মানে সে আর এই সম্পর্কে জড়িয়ে থাকতে চাচ্ছেনা।

হঠাৎ করে আড়াল করাঃ
যে জিনিসগুলো সচরাচর আপনারা সহজেই দুজন ব্যবহার করতেন, আপনার সঙ্গী যদি হঠাৎ করেই সে জিনিসগুলো আপনার থেকে আড়াল করে তবে বুঝবেন সম্পর্কটা ঠিক নেই। হতে পারে সেটা ফেসবুকে পাসওয়ার্ড কিংবা ব্যক্তিগত কোন তথ্য।

কম্পিউটার বা অনলাইনে মাত্রাতিরিক্ত সময় দেয়াঃ

যদি আপনার সঙ্গী হঠাৎ করেই কম্পিউটারে বা অনলাইনে অতিরিক্ত সময় দেয় তবে বুঝবেন সম্পর্কটা ঠিক নেই। দরকারি কাজে কম্পিউটারে বা অনলাইনে তিনি থাকতেই পারে কিন্তু সেটা যেন মাত্রার বাইরে চলে না যায়। এর মানে হয় সে নতুন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছে না হয় আপনাকে নিয়ে সুখী নয়। এই ব্যাপারে তাই সতর্ক থাকাটা বাঞ্ছনীয়।

বদলে যাওয়া ব্যবহারঃ

যদি দেখেন আপনার সঙ্গী হঠাৎ করেই তার সাধারণ আচরণ বদলে ফেলেছে তবে কিছুটা সন্দেহ হওয়াই স্বাভাবিক। এই ধরুন বিশেষ দিনগুলো ভুলে যাওয়া, ছোটখাটো ব্যাপারে ঝগড়া করা, অকারনে চিৎকার চ্যাঁচামেচি করা, খুঁটিনাটি ব্যাপারে দোষ ধরা… এই আচরনগুলো মোটেও গ্রহনযোগ্য নয়।

আজকাল প্রেমিক বা প্রেমিকা, স্বামী বা স্ত্রী অহরহ এঁকে অপরের সাথে প্রতারণা করছে। সম্পর্কে ভেঙে নতুন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ছে কিংবা সম্পর্ক থাকা অবস্থাতেই অন্য সম্পর্কে জড়াচ্ছে। উপরের কারনগুলো যদি আপনার সম্পর্কে এসে হানা দেয় তবে আপনার সঙ্গীর সাথে খোলাখুলি কথা বলুন। এই ব্যাপারগুলো নিয়ে আলোচনা করুন।

সম্ভব হলে সব মিটমাট করে সুখে থাকুন তা না হলে প্রতারনার সম্পর্কে ইতি টানুন। অবশ্যই সন্দেহের বশে কোন সিদ্ধান্ত নিবেন না।