ঝিনাইগাতীতে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে হয়রানির অভিযোগ

স্টাফরির্পোটার | সোমবার, জুলাই ৩০, ২০১৮
ঝিনাইগাতীতে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে হয়রানির অভিযোগ

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে হয়রানি করা হচ্ছে বলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। গত ২৯ জুলাই রোববার উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের নাচনমহুরী গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা সোনা মিয়ার ছেলে মো. জাহিদুল ইসলাম এ অভিযোগ করেছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশন (ভূমি) সরেজমিনে তদন্ত সাপেক্ষে প্রতিবেদন প্রদান করবেন বলে জানা গেছে।
অভিযোগে বলা হয়েছে, একই গ্রামের মো: নফল উদ্দিনের ছেলে নজরুল ইসলাম (২৫) ও তার পরিবারের লোকজন বিএনপি পন্থি এবং ক্যাডার প্রকৃতির দাঙ্গাবাজ, দুর্দান্ত চরিত্রহীন প্রকৃতির লোক। নব্য আওয়ামীলীগ কর্মী বলেও দাবিদার। তারা আর্থিকভাবে প্রভাবশালী এবং প্রতিপত্তিশালী।

পক্ষান্তরে আমাদের  পরিবারটি  অতি দরিদ্র, সহজ সরল এবং নিরীহ প্রকৃতির লোক। অভিযুক্ত ব্যক্তি ৩/৪বছর পূর্বে ৫ শতাংশ জমি প্রভাব প্রতিপত্তির জোরে অন্যায় ও অবৈধ ভাবে জবর দখল করে নেয়  জমি দখলে বাধা প্রদান ও নিষেধ করতে গেলে জীবন নাশের হুমকি ভয়ভীতি প্রদান করে থাকে। এ ব্যাপারে জমি সংক্রান্তের জের ধরে একটি মামলা কোর্টে বিচারাধীন রয়েছে। এই মামলার ফলে অভিযুক্ত ব্যক্তিরা মারাত্বক ক্ষিপ্ত মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে হয়ে উচ্ছেদ করার জন্যে বিভিন্ন কুট-কৌশল অবলম্বন করিয়া আসছে। মুক্তিযোদ্ধা পরিবারটির বাড়ি ভিটা না থাকায় অন্যের বসতবাড়িতে দীর্ঘদিন যাবত বসবাস করে আসছে ।

অভিযোগকারী মো. জাহিদুল ইসলাম বলেন, আমার পিতা একজন মুক্তিযোদ্ধা আমি অতিকষ্টে সংসার চালিয়ে আসছি। কিন্তু আমার পরিবারে পিছু নিয়ে নজরুল ইসলাম ও তার পরিবারের লোকজন আমাদের বিভিন্ন ভাবে হয়রানী করে নি:স্ব করে দিয়েছে। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত নজরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে তা না পাওয়ায় তার কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি ।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুবেল মাহমুদ অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তা সরেজমিনে তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্যে সহকারী কমিশনার ভূমি (এসিল্যান্ড) কে দায়িত্ব দিয়েছি ।