কিটনাশক ছাড়াই পিঁপড়া তাড়ান

ফিচার ডেস্ক, | মঙ্গলবার, আগস্ট ৭, ২০১৮

কিটনাশক ছাড়াই পিঁপড়া তাড়ান
বৃষ্টির সময় ঘর-বাড়িতে পিঁপড়ার উপদ্রব বাড়ে। বৃষ্টির আভাস বুঝলেই পিঁপড়া গর্ত ছাড়ে। বেড়িয়ে যায় খাবার সংগ্রহে। তখন পিঁপড়ার দল বাসা-বাড়িতে হানা দেয়। তাই বর্ষাকালে পিঁপড়ার উপদ্রবে ব্যতিব্যস্ত হয়ে ওঠেন গৃহস্থ।

পিঁপড়ার হাত থেকে নিষ্কৃতি পেতে নানা রাসায়নিক ও কিটনাশকে ভরসা করতে হয়। এতে অকারণে মারাও পড়ে পিঁপড়া, আবার রাসায়নিকের কারণে বাড়ির সদস্যদের শারীরিক সমস্যাও হয়। অনেকের এই সব রাসায়নিক থেকে নানা অসুখও ছড়ায়।

তার চেয়ে এমন কিছু ঘরোয়া উপায় অবলম্বন করতেই পারেন যেখানে অকারণ পিঁপড়াদের না মেরে, তাদের তাড়াতে পারেন বাড়ি থেকে। এ দিকে আপনিও মুক্ত থাকবেন রাসায়নিকের বাড়বাড়ন্ত থেকে।

যে রাসায়নিক সংকেতের মাধ্যমে পিঁপড়েরা একে অন্যের সঙ্গে যোগাযোগ চালায়, নিজেদের রাস্তা ঠিক করে, সেই রাসায়নিককে নষ্ট করে ঝাল জাতীয় উপাদান। তাই শুকান মরিগের গুঁড়ার গন্ধ সহ্য করতে পারে না পিঁপড়ারা। বর্ষায় বাড়ির উঁচু জায়গাগুলোয় (যেখানে শিশুদের হাত পৌঁছবে না) ছড়িয়ে রাখুন অল্প শুকনা মরিচের গুঁড়া। পিঁপড়েরা আর বাসাই বাঁধবে না ওখানে।

ভিনিগারের অম্ল পিঁপড়া তাড়াতে খুব কার্যকর। এক কাপ পানিতে কিছুটা ভিনিগার মিশিয়ে তা ছড়িয়ে দিন পিঁপড়া উপদ্রুত এলাকায়। পিঁপড়ারা ওই এলাকার ধারেকাছে ঘেঁষবে না।

পিঁপড়ার অবাধ যাতায়াত যে সব জায়গায়, সেখানে দারুচিনির গুঁড়ো ছড়িয়ে রাখুন। দারুচিনির গন্ধ পিঁপড়েদের ঘ্রাণশক্তিকে কিছুটা দুর্বল করে দেয়। পিঁপড়ের দিক নির্দেশ ক্ষমতা লোপ পায়।

লেবুর রসের অ্যাসিটিক অ্যাসিড পিঁপড়াদের গন্ধ চিনতে বাধা দেয়। তাই পানির মধ্যে খানিকটা লেবুর রস মিশিয়ে তা স্প্রে করতে পারেন ঘরের কোণায়। সহজেই পিঁপড়ামুক্ত হবে ঘর-বাড়ি।