হালুয়াঘাটে মোবাইলে গেইম খেলাকে কেন্দ্র করে কলেজ ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা

ওমর ফারুক সুমন, হালুয়াঘাটঃ | শনিবার, আগস্ট ১৮, ২০১৮
হালুয়াঘাটে মোবাইলে গেইম খেলাকে কেন্দ্র করে কলেজ ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা


ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার দক্ষিন মনিকূড়া গ্রামে নাফি আল নাজরান (১৮) নামে এক পলিটেকনিক্যাল ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। জানা যায়, শুক্রবার সন্ধায় ঋতু নামে এক মেডিক্যাল শিক্ষার্থী মোবাইলে “ক্লেশ এন্ড ক্লেইম” নামে একটি মোবাইল গেইম ফেইসবুকে পোষ্ট করলে সেখানে উত্তরবাজার এলাকার সিদ্দিকুর রহমানের পুত্র সুমন(১৬) নামে এক শিক্ষার্থী বাজে মন্তব্য করেন। পরে ঋতু তার খালাতো ভাই নিহত নাজরানকে জানালে নাজরান তার প্রতিবাদ করেন এবং সুমনকে চড় থাপ্পড় দেন।

সেই আক্রোশের জের ধরে শুক্রবার রাত আটটার দিকে সুমন তার সঙ্গীয় বন্ধুদের নিয়ে নাজরানকে বেধড়ক মারপিট করেন।অভিযোগ রয়েছে এ ঘটনার নেপথ্যে কমিশনার শামসুদ্দিন শামসু নির্দেশনা  রয়েছে। নিহতের পরিবারবর্গ জানান, নাজরান মারপিটের ঘটনা কাউকে না বলে শেষ রাতে হঠাৎ চিল্লাচিল্লি শুরু করে দেয়। পরে টের পেয়ে হাসপাতালে আনার পথে ভোর পাঁচটায় মারা যায়। 

এ ঘটনায় হত্যার সাথে জড়িতের অভিযোগে পুলিশ সেন্ট এন্ড্রোজ উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর চার শিক্ষার্থী সিয়াম, সুলাইমান, অয়ন, হিমেলকে আটক করে। এ ঘটনায় হালুয়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার বলেন, এ ঘটনায় চারজনকে আটক করেছি। এছাড়া আরও ৮/৯ জন জড়িত রয়েছ বলে অভিযোগ রয়েছে। মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।উল্লেখ্য নিহত নাজরান গৌরিপুর পলিটেকনিক্যাল কলেজের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আর ঋতু দিনাজপুর মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থী। ঋতুর ধোবাউড়া রোদের এমদাদ হোসেনের কন্যা।