ইলিশ নিতে গিয়ে শাহজালালে বিপাকে ভারতীয় পাইলট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, | রবিবার, আগস্ট ১৯, ২০১৮
ইলিশ নিতে গিয়ে শাহজালালে বিপাকে ভারতীয় পাইলট
ঢাকা থেকে বড় একটি ইলিশ নিয়ে বিমানে উঠতে যাচ্ছিলেন এয়ার ইন্ডিয়ার একজন পাইলট। অনেকটা লুকিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেও বিমানবন্দরের নিরাপত্তাকর্মীর কাছে হাতেনাতে ধরা পড়েন তিনি। একে ‘চোরাচালান’ হিসেবে গণ্য করে ইলিশ নিয়ে বিমানে যেতে নিরাপত্তারক্ষী পাইলটকে বাধা দেন।

নতিস্বীকার না করে উল্টে বাগবিতণ্ডায় জড়ান বিমানের ওই পাইলট। এ কারণে কলকাতাগামী ওই বিমান ছাড়তে ঘণ্টাখানেক দেরি হয়। আর শেষপর্যন্ত ইলিশ নিয়ে যেতে পারেননি ওই পাইলট। খবর বর্তমানের।

এ ঘটনায় ইতোমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে এয়ার ইন্ডিয়া। আর নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে বাগবিতণ্ডার কারণে বিমান ছাড়তে দেরি হলেও লগ বুকে লেখা হয়েছে যান্ত্রিক ত্রুটির কথা।

এ বিষয়ে এয়ার ইন্ডিয়ার মুখপাত্র জানান, ‘ঘটনাটি নিয়ে ইতিমধ্যেই অভ্যন্তরীণ তদন্ত শুরু হয়েছে। বিমান ছাড়তে দেরি হওয়ার নেপথ্যে যান্ত্রিক ত্রুটি অথবা এটিসি ছাড়পত্র না পাওয়ার মতো একাধিক কারণ থাকতে পারে।’

তিনি জানান, ‘ওই দিন ঢাকা থেকে কলকাতাগামী বিমানটি কেন দেরিতে উড়েছিল, তা নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে। সংস্থার যেকোনও বিমান দেরিতে ছাড়লেই তার কারণ জানতে এয়ার ইন্ডিয়া এভাবেই তদন্ত করে থাকে। তবে প্রমাণিত নয়, এমন কোনও অনুমান করা উচিৎ নয়।’

পুরো ঘটনাটি হলো- গত ৮ আগস্ট এআই-২২৯ বিমানটি শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে রাত ৯.২৫ মিনিটে ছাড়ার কথা ছিল। সোয়া নয়টার মধ্যেই যাত্রীরা যে যার আসনে বসেও পড়েন।

বিমানের ককপিটে যাওয়ার জন্য রওনা দিয়েছিলেন পাইলট। সেসময় বিমানবন্দরের ভেতরে চুক্তিভিত্তিক কাজ করা এক কর্মী পাইলটের হাতে একটি ব্যাগ দেন। তখন পাশে থাকা এক নিরাপত্তাকর্মী তাকে ব্যাগ খুলে দেখাতে বলেন। তখন ব্যাগে বরফ ঢাকা আড়াই কেজি ওজনের একটি ইলিশ দেখে বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী পাইলটকে সেটি নিতে বাধা দেন নিরাপত্তারক্ষী।

এরপরই নিরাপত্তারক্ষীর সঙ্গে বসচায় জড়িয়ে পড়েন পাইলট। পরে এটিসি তে সই না করেই বিমানের ককপিটে গিয়ে বসেন ক্ষুব্ধ পাইলট। পরে বিমানটিকে ওড়ার ছাড়পত্র দেয়া না হলে পাইলট এসে এটিসিতে সই করেন। এরপর রাত সাড়ে দশটার দিকে বিমানটি কলকাতার উদ্দেশ্যে উড্ডয়ন করে।

তবে পাইলট যদি ঢাকা থেকে ইলিশটি নিয়ে যেতেন তবে তা নিয়ে ভারতের বিমানবন্দর পার হতে পারতেন না বলে জানিয়েছেন এয়ার ইন্ডিয়ার এক কর্মকর্তা। তিনি জানান, ‘ওই প্যাকেটে যদি ইলিশ নাও থাকত, তবুও সেটি বিমানে নিয়ে আসতে পারতেন না ওই চালক। কারণ, ভারতীয় আইনে বিদেশ থেকে কাঁচা ফল, সবজি, মাছ এবং পোলট্রি লাইসেন্স ছাড়া আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।’