নিজের চারপাশকে পরিচ্ছন্ন রাখি, পরিচ্ছন্ন ময়মনসিংহ গড়ে তুলি

ময়মনসিংহ | মঙ্গলবার, আগস্ট ২১, ২০১৮
নিজের চারপাশকে পরিচ্ছন্ন রাখি,
পরিচ্ছন্ন ময়মনসিংহ গড়ে তুলি

ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার মাহমুদ হাসান পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষ্যে বিভাগের সর্বস্তরের নাগরিকদের আন্তরিক শুভেচ্ছা জানানিয়েছেন ।  তিনি এক বাণীকে বলেন, ত্যাগের মহিমায় উদ্ভাসিত হয়ে আমরা রূপক অর্থে আল্লাহর নির্দেশে পশু কোরবানী দিয়ে থাকি। বস্তুতপক্ষে প্রতিটি মানুষের মধ্যে যে হিংসা-দ্বেষ, ঘৃণা ও পশুবৃত্তি রয়েছে তাকে কোরবানী দেয়াই কোরবানীর অন্তর্নিহিত শিক্ষা।

ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার মাহমুদ হাসান বলেন, ত্যাগের মহিমায় অন্যতম উদ্ভাসিত ধর্মীয় উৎসব হিসেবে আমরা উৎসবমূখর পরিবেশে ঈদ উদযাপন করে থাকি। তবে আমরা লক্ষ্য করেছি যে, কোরবানীর বর্জ্য অপসারণের বিষয়ে আমাদের ব্যাপক উদাসীনতা রয়েছে। পশুর রক্ত ও অন্যান্য বর্জ্য যত্রতত্র ফেলার কারণে মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিসহ বিভিন্ন রকম কঠিন রোগের বিস্তার ঘটে থাকে।

নির্দিষ্ট স্থানে পশু জবাই ও বর্জ্য অপসারণের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে সুস্পষ্ট নির্দেশনা থাকলেও তা কার্যকরভাবে বাস্তবায়িত হচ্ছে না শুধুমাত্র আমাদের সচেতনতার অভাবে। মানুষের অভ্যাস এবং অভ্যস্ত জীবনাচারএরইতিবাচকপরিবর্তনএকটিজটিলএবংসময়সাপেক্ষবিষয়। আইন প্রয়োগের পাশাপাশি নিজস্ব বিভাগীয় কমিশনার মাহমুদ হাসান  আরো বলেন, সচেতনতাবোধ সৃষ্টি ছাড়া নাগরিক অভ্যাস গড়ে তোলা সম্ভব নয়।

জাতি হিসেবে আমাদের অহংকার করার মতো অনেক ক্ষেত্র থাকলেও পরিচ্ছন্ন নাগরিক জীবন ব্যবস্থা অনুশীলনে আমরা উন্নত দেশতো অনেক দূরের কথা আমাদের কাছাকাছি দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলো থেকেও অনেক পিছিয়ে আছি।

বিদেশীরা এ দেশে বেড়াতে এসে আমাদের অনেক সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য নিয়ে উচ্ছ্বসিত হলেও আমাদের অপরিচ্ছন্ন নগর জীবন নিয়ে তারা অসন্তোষ ব্যক্ত করতে কোন রকম দ্বিধা করে না। অন্যদিকে ইসলাম ধর্মেও বলা হয়েছে, “পবিত্রতা ঈমানের অঙ্গ”। যে মানুষ পরিচ্ছন্ন ও পবিত্র জীবন যাপন করে না তাদের ঈমান প্রশ্নবিদ্ধ। তাই নিজ নিজ বাড়িঘর, প্রতিষ্ঠান এবং কর্ম ক্ষেত্রের আঙ্গিনাসমূহ নিয়মিত পরিচ্ছন্ন রাখার বিষয়ে সকল নাগরিকদের সক্রিয় সহযোগিতা কামনা করে বিভাগীয় কমিশনার মাহমুদ হাসান বলেন, আসুন, “নিজের চারপাশকে পরিচ্ছন্ন রাখি, পরিচ্ছন্ন ময়মনসিংহ গড়ে তুলি”।