কেন্দুয়ায় হামলায় আহত অটো রিক্সা চালক হাসপাতালে মারা গেছেন

কেন্দুয়া (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি : | রবিবার, আগস্ট ২৬, ২০১৮
কেন্দুয়ায় হামলায় আহত অটো রিক্সা চালক
হাসপাতালে মারা গেছেন

নেত্রকোণা কেন্দুয়া উপজেলার পাইকুড়া ইউনিয়নের বাহ্মনগাতী গ্রামের মিজর উদ্দিনের ছেলে অটো রিক্সা চালক স্বপন মিয়া (২২) তাড়াইল উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

শনিবার সকালে তাকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেয়া হলে বিকালেই তিনি মারা যান। পেমই তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ উজায়ের আল মাহমুদ আদনান জানান,

অটো রিক্সা চালক স্বপন মিয়ার সঙ্গে সোহাগপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে মোটর সাইকেল চালক জামালের রাস্তায় সাইট দেয়াকে কেন্দ্র করে ঈদের আগের দিন মঙ্গলবার বিকেলে কথা কাটা কাটি হয়।

এরই সূত্র ধরে জামাল ও তার লোকজন স্বপনকে দেধড়ক মারপিট করে। এতে স্বপনের একটি হাত ভেঙ্গে যায়। পারিবারিক সূত্রে জানায়, ঈদের ছুটির কারণে স্বপনকে হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব হয় নি। বাড়িতে রেখেই কবিরাজির চিকিৎসার মাধ্যমে তার হাতের চিকিৎসার সেবা চলছিল।

কিন্তু আস্তে আস্তে অবস্থার অবনতি হলে শনিবার সকালে স্বপনকে তাড়াইল উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হলে বিকেলেই তিনি মারা যান। এ ঘটনায় স্বপনের বড় ভাই হারুন মিয়া বাদী হয়ে জামাল,

রাজিব, রবিন, তপন, মঞ্জু সহ অজ্ঞাত নামা আরো দু’জনকে আসামী করে কেন্দুয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। কেন্দুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ ইমারত হোসেন গাজী জানান, হামলায় আহত স্বপন ৪ দিন পর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। এ ঘটনায় ৫ জন নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত নামা আরো দুজনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে এখনো কেউ গ্রেফতার হয় নি।