‘লেডিস ফার্স্ট’-এ বিশ্বাসী শাহরুখ

বিনোদন ডেস্ক, | বৃহস্পতিবার, আগস্ট ৩০, ২০১৮
‘লেডিস ফার্স্ট’-এ বিশ্বাসী শাহরুখ
সহশিল্পীদের সঙ্গে সব সময়ই সমতার পক্ষে বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান। ২০১৩ সালে একটি সাক্ষাতকারে শাহরুখই প্রথম বলেছিলেন, ছবি শুরু হওয়ার সময় অভিনেতার নামের আগে অভিনেত্রীর নাম দেখাতে হবে। সেই কথার প্রতিফলন তিনি ঘটিয়েছিলেন ব্লকবাস্টার ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ ছবিতে। ওই ছবি শুরুর সময়ে শাহরুখ খানের নামের আগে তার নায়িকা দীপিকা পাড়ুকোনের নামটি আগে দেখানো হয়।

সম্প্রতি ভারতীয় একটি দৈনিককে দেয়া সাক্ষাৎকারেও একই সুরে কথা বললেন কিং অব রোমান্স শাহরুখ খান। তিনি বলেন, ‘আমি সব সময়ই ‘লেডিস ফার্স্ট’-এ বিশ্বাসী। ক্যারিয়ারের একেবারেই শুরতে চমৎকার কয়েকজন নারী আমাকে সাহায্য করেছিলেন। মাধুরী দীক্ষিত, জুহি চাওলা ও শ্রীদেবী তাদের মধ্যে অন্যতম। তারা আমাকে তারকা হতে সাহায্য করেছেন। এ জন্যই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, পর্দায় অভিনেত্রীদের নাম আগে দেখাতে হবে।’

এদিকে গত কয়েক বছর ধরেই বলিউডে সম্মানী বৈষম্য নিয়ে নারী অভিনয়শিল্পীদের চাপা ক্ষোভ প্রকাশিত হচ্ছে। দীপিকা পাড়ুকোন ও প্রিয়াংকা চোপড়াসহ বেশ কয়েকজন প্রথমসারির অভিনেত্রী এ বিষয় নিয়ে প্রকাশ্যে আওয়াজ তুলেছেন। তাদের দাবি, ছবি হিট হওয়ার পেছনে নায়কের পাশাপাশি নায়িকার ভূমিকাও কোনো অংশে কম নয়। কিন্তু নায়কদের চেয়ে নায়িকারা অনেক কম পারিশ্রমিক পেয়ে থাকেন।

সাক্ষাতকারটিতে বলিউড বাদশাহ কথা বলেন এসব বিষয়েও। দীপিকা, প্রিয়াংকাদের মতো তিনিও নারী অভিনয়শিল্পীদের সমান পারিশ্রমিকের পক্ষে। শাহরুখ খান বলেন, ‘একটা বিষয় আমরা এড়াতে পারি না, সেটা হচ্ছে, এই ইন্ডাস্ট্রি পুরুষনিয়ন্ত্রিত। এর পরিবর্তন হলেই আমার ভালো লাগত। এখানে বৈষম্য থাকা উচিত নয়। নারী ও পুরুষ শিল্পীদের সমান পারিশ্রমিক পাওয়া উচিত। এটা যে কেন ভিন্ন, সেটা আমার জানা নেই।’

তবে শাহরুখ খান এটাও বলেন, ‘নারী এবং পুরুষ কারোই নিজেকে অতিমূল্যায়ন করা উচিত নয়। এ ক্ষেত্রে অভিনয়শিল্পী বা পরিচালক কেউই যেন অতিরিক্ত পারিশ্রমিক দাবি না করেন।’

বর্তমানে ‘জিরো’ ছবির কাজ নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন কিং খান। এই ছবিতে বামনের চরিত্রে দেখা যাবে তাকে। যেটিতে তার নায়িকা ক্যাটরিনা কাইফ ও আনুশকা শর্মা। চলতি বছরের শেষে ‘জিরো’র মুক্তি পাওয়ার কথা।