২০ বছর পর হিন্দু জনগোষ্ঠী দ্বিগুণ হবে: এরশাদ

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | বুধবার, সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৮
২০ বছর পর হিন্দু জনগোষ্ঠী দ্বিগুণ হবে: এরশাদ
জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, আগামী ২০ বছর পর বাংলাদেশে হিন্দু জনগোষ্ঠীর মানুষের সংখ্যা দ্বিগুণ হবে। ড. আবুল বারাকাত তার বইয়ে উল্লেখ করেছেন, আগামী ২০ বছর পর বাংলাদেশে কোনও হিন্দু থাকবে না। আমি চ্যালেঞ্জ করে বলছি, আগামী ২০ বছর পর এর সংখ্যা দ্বিগুণ হবে।
মঙ্গলবার (৪ সেপ্টেম্বর) বিকালে রাজধানীর গুলশান ইমানুয়েলস কনভেনসেন্টারে জন্মাষ্টমী উপলক্ষে সনাতন সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দ ও বিশিষ্ট নাগরিকদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।
হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেন, ‘বুকে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ লালন করি। মুক্তিযুদ্ধের সময় হিন্দুদের আত্মত্যাগের কথা ভোলা যাবে না।’ জাতীয় পার্টির ক্ষমতায় সময়ের নানা উন্নয়নকাজের কথা তুলে ধরে ধরেন তিনি।
জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান আক্ষেপ করে বলেন, ‘ক্ষমতায় থাকাকালে হিন্দুরা আমাকে সহযোগিতা করেননি। কারণ, আমি রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম করেছিলাম।’ তিনি বলেন, ‘আমি অন্য ধর্মগুলোকেও সম্মান দিয়েছিলাম। আমার জীবনের যত কিশোর বন্ধু রয়েছে তার বেশির ভাগই হিন্দু। আমার শিক্ষাগুরুও হিন্দু।’
সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাপা ক্ষমতায় গেলে সংরক্ষিত ৩০টি আসন সংখ্যালঘুদের জন্য রাখা হবে।’ এসময় তিনি দূর্গাপূজায় হিন্দুদের ছুটি বাড়ানোর জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।
দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়ের সভাপতিত্বে জাপা চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা সোমনাথ দের সঞ্চালনায় শুভেচ্ছছা বিনিময়সভায় আরও বক্তব্য রাখেন জাতীয় সংসদের বিরোধী দলের নেতা রওশন এরশাদ, জাপার কো- চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, আজম খান, মেজর (অব.) খালেদ আখতার, হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতা রানা দাশ গুপ্ত, কৃষ্ণকীর্তন দাস, নোকল চন্দ্র সাহা, তাপস পাল, সুজন দে প্রমুখ।