নেপালকে বন্দর ব্যবহারের অনুমতি চীনের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | শনিবার, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৮
নেপালকে বন্দর ব্যবহারের অনুমতি চীনের

নেপালকে বন্দর ব্যবহারের অনমুতি দিলো চীন। দেশটির চারটি সমুদ্র বন্দর এবং তিনটি স্থলবন্দর ব্যবহার করতে পারবে নেপাল। এক বিবৃতিতে একথা জানিয়েছে নেপালের বাণিজ্যমন্ত্রণালয়। এরফলে ভারতের ওপর নির্ভরশীলতা অনেকাংশে কমে যাবে নেপালের।

ব্যাবসা বাণিজ্যের ক্ষেত্রে অনেকাংশে ভারতের ওপর নির্ভরশীল হিমালয় কন্যা নেপাল। তবে এবার সেই ধারা থেকে বের হয়ে আসছে দেশটি। এ বিষয়ে চীনের মৌখিক অনুমতি পেয়েছে এবং খুব দ্রুত চুক্তি করবে নেপাল।

২০১৫ ও ২০১৬ সালে সীমান্ত সমস্যার কারণে বেশ কয়েকমাস ধরে নেপালে প্রবল জ্বালানী ও ওষুধের সমস্যা তৈরি হয়েছিল। প্রয়োজনীয় পণ্য চলাচলের জন্য নেপাল কলকাতা ও বিশাখাপত্তনম বন্দরের ওপরে নির্ভরশীল। পরপর দুবছর এনিয়ে সমস্যার পরই নেপাল ভারতের বিকল্প খুঁজতে শুরু করে। শুক্রবার চীন ও নেপালের মধ্যে বন্দর ব্যবহার করতে দেওয়ার ব্যাপারে কথাবার্তা চূড়ান্ত হয়।

নেপালের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা রবিশঙ্কর জানান, 'চীনের তাইঝিন, সেনঝেন, লিয়ানয়ুগাং ও ঝানঝিয়াং বন্দর ব্যবহার করতে পারবে নেপাল। ভারতের ২টি বন্দরের পাশাপাশি চীনেরও ৪টি বন্দর ব্যবহার করার সুযোগ পাচ্ছে নেপাল। জাপান, কোরিয়া ও উত্তর এশিয়ার দেশগুলি থেকে পণ্য আমদানীর সময় চীনের বন্দর ব্যবহার করলে সময় অনেকটাই কম লাগবে। খরচও কমবে'।

নেপালকে চীনের বন্দর ব্যবহারের অনুমতি কিছুটা হলেও চিন্তায় ফেলেছে প্রতিবেশি দেশ ভারতকে।