ভৈরবের আবাসিক হোটেলে অভিযান চালিয়ে ১০ নারী ও ৭ পুরুষ গ্রেপ্তার

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | শনিবার, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৮
ভৈরবের আবাসিক হোটেলে অভিযান চালিয়ে  ১০ নারী ও ৭ পুরুষ গ্রেপ্তার
কিশোরগঞ্জের ভৈরব পৌর শহরে শৈবাল ও সোনালী নামে দুইটি আবাসিক হোটেলে অভিযান চালিয়ে ১০ নারী ও ৭ পুরুষসহ হোটেল মালিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পরে অভিযানে গ্রেপ্তার কৃত সকলকে গত শুক্রবার দুপুরে কিশোরগঞ্জ কারাগারে পাঠানো হয়। জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে কিশোরগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোঃ শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে জেলা গোয়েন্দা সংস্থা (ডিবি) পুলিশের একটি বিশেষ টিম অভিযান চালায়।

অভিযানের ব্যাপারে কিশোরগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ শফিকুল ইসলাম স্থামীয় সাংবাদিকদের জানায়, ভৈরবের উল্লেখিত এই দুটি হোটেলের বিরুদ্ধে দীর্ঘ দিন যাবত নারী ও মাদক ব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। পুলিশ সুপারের নির্দেশক্রমে ডিবি পুলিশের অফিসার ইনচার্জ আবুবক্কর ছিদ্দিক মিয়াকে সঙ্গে নিয়ে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানের গোপনীয়তা রক্ষার স্বার্থে অভিযান বিষয়ে ভৈরব থানা পুলিশকে অবগত করা হয়নি বলেও জানান তিনি।

অভিযানে শৈবাল হোটেলের সত্ত্বাধিকারী হান্নান মিয়া (৫০), হোটেল ম্যানেজার মফিজ মিয়া (৫১), হোটেল বয় আবু ছালেক (৩২) সহ অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত থাকা সোহেল মিয়া (৩৭) ও রওশন মিয়া (৫০) কে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় হোটেলের বিভিন্ন কক্ষ থেকে শিলা (৩০), সামিয়া (২৫), ঊর্মি (২২), লাবনী (২৭) নামের ৪ নারী এবং হোটেল সোনালীর বিভিন্ন কক্ষ থেকে পায়েল (৩০), শিখা (২৫), স্বপ্না (১৬), তাসলিমা, সুমী (২৬), মুন্নী (২৪) নামের ৬ নারী ও মাসুদ (৩৫), আফতাবুল (৩৫), আতাউর (৩৬) তানভীর (২৪) কে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাদের সকলকে জেল-হাজতে পাঠায়।