চুরি ঠেকাতে রাত জেগে পাহারা

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | সোমবার, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৮
চুরি ঠেকাতে রাত জেগে পাহারা

চুরি ও ছিনতাই ঠেকাতে গফরগাঁও পৌর শহরে অবস্থিত গফরগাঁও বাজার ব্যবসায়ীরা এখন পালা করে রাত জেগে বাজার ও সড়কে পাহারা দিচ্ছেন। সম্প্রতি চুরি বৃদ্ধি পাওয়ায় স্বেচ্ছায় এই পাহারার ব্যবস্থা চালু করেছেন গফরগাঁও বাজারের ব্যবসায়ীরা।

গতকাল রবিবার রাত ১১টার পর স্বেচ্ছায় পাহারার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন সালটিয়া ইউপি চেয়ারম্যান নাজমুল হক ঢালী। এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির (দুপ্রক) সভাপতি ডা. কে এম এহছান, গফরগাঁও পৌরসভার কাউন্সিলর মসিউর রহমান কিরন, সামাজিক সংগঠন ৮৫ এর সভাপতি আব্দুল হামিদ বাচ্চু, গফরগাঁও প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক আব্দুছ ছালাম, সবুজ, মানবাধিকার কর্মী শাহ আলম উজ্জ্বল প্রমুখ।

রাত ১২টার দিকে বাজারে গিয়ে দেখা যায়, লাঠিসোঁটা, টর্চলাইট হাতে বাজারের বিভিন্ন স্থানে পাহারা বসিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। অপরিচিত কাউকে দেখলে তার পরিচয় জেনে নিচ্ছেন। শহরের জামতলা মোড় থেকে শুরু করে মধ্যবাজার হয়ে পাবলিক হল মোড় পর্যন্ত চলছে ভ্রাম্যমাণ পাহারা।

উপজেলা দুপ্রক সভাপতি কে এম এহছান বলেন বাজারের পরিবেশ সুন্দর রাখার পাশাপাশি চুরি ঠেকাতে ব্যবসায়ীরা একত্র আলোচনা করে পাহারার উদ্যোগ নেন। ব্যবসায়ীরা রাত ১১টার পরে থেকে ভোর পাঁচটা পর্যন্ত বাজার পাহারা দিবেন।

সালটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাজমুল হক ঢালী বলেন, গফরগাঁও বাজারে সরকারি বেসরকারি ছয়টি ব্যাংক, বড় বড় আটটি বিপনী বিতানসহ ছোট-বড় অসংখ্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। সম্প্রতি বাজারটিতে চুরি বেড়ে যাওয়ায় ব্যবসায়ীরা নিজেদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তার জন্য পাহারার উদ্যোগ নিয়েছে। এতে বিপনী বিতানসহ সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিকগণ অনেকটা নিশ্চিন্ত থাকতে পারবেন।

গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল আহাদ খান বলেন, বাজার ব্যবসায়ীরা স্বেচ্ছায় রাত জেগে বাজার পাহারা দিচ্ছেন। তাদের চমৎকার উদ্যোগকে স্বাগত জানাই। তবে বাজার এলাকায় নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশও তৎপর রয়েছে।