নান্দাইলে ধর্ষণের অভিযোগে এক জনকে যাত্রাবাড়ী থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪

আসাদুজ্জামান তালুকদার,ময়মনসিংহ | মঙ্গলবার, জুলাই ৯, ২০১৯
নান্দাইলে ধর্ষণের অভিযোগে এক জনকে যাত্রাবাড়ী থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪

র‌্যাব তার প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে জঙ্গি ও সন্ত্রাস, মাদক, অস্ত্র, অপহরণ, হত্যা, নারী নির্যাতন ও ধর্ষণসহ বিভিন্ন প্রকার অবৈধ কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে আপোষহীন অবস্থানে থেকে কাজ করে যাচ্ছে যা দেশের সর্বস্তরের জনসাধারণ কর্তৃক ইতোমধ্যেই বিশেষ ভাবে প্রশংসিত হয়েছে।

গত- ২৪/০৬/১৯ ইং তারিখ ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল থানাধীন রাজগতি ইউনিয়নের কালীগঞ্জ বাজার এলাকায় বিয়ে করার কথা বলে ডেকে এনে  এক মহিলাকে ধর্ষণ করা হয়। ঘটনার দুই মাস পূর্ব হতে  অভিযুক্ত মোঃ শামীম (৩০) এর সাথে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মহিলার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। বিয়ে করবে মর্মে প্রতিশ্রুতি দিয়ে শামীম গত ২৪/০৬/২০১৯ খ্রিঃ

তারিখ ময়মনসিংহ সদরের মাসকান্দা এলাকা থেকে নান্দাইল কালীগঞ্জ বাজার এলাকায় মহিলাকে ডেকে নিয়ে যায়। ঐদিন রাত আনুমানিক ২৩.০০ ঘটিকায় নান্দাইলের কালীগঞ্জ বাজারের মার্কেটের ভিতর অভিযুক্ত শামীমের নিজ টেইলার্স এর দোকানের ভিতর  প্রথমে শামীম তাকে ধর্ষণ করে এবং শামীম এর সহযোগী পাশের কম্পিউটার সার্ভিসিং এর দোকানদার রিপন মিয়াসহ আরও দুই তিন জন তার ইচ্ছার

বিরুদ্ধে ধর্ষণ করতে গেলে ভিকটিম বুঝতে পারে যে তাকে বিয়ে করার জন্য ডেকে আনা হয় নাই, বরং খারাপ উদ্দেশ্যের জন্য এখানে এনেছে। তখন সে বুঝতে পেরে চিৎকার চেচামেচি শুরু করলে ঘটনার রাত তারিখ ২৫/০৬/১৯ খ্রিঃ মহিলাকে আনুমানিক

০১.৩০ ঘটিকায় উক্ত বাজার থেকে ৭০০-৮০০ গজ পূর্বে কালীগঞ্জ –তারাইল সড়কের পাশে একটি পরিত্যাক্ত ক্লাব ঘরে রেখে ধর্ষণকারীরা পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে এলাকাবাসীর সহযোগীতায় পুলিশ ও পরিবারের লোকজন এসে ভিকটিমকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

উক্ত ঘটনায় নান্দাইল থানার মামলা নং ৩৯ তাং ২৫/০৬/১৯ ,ধারা-২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধন-২০০৩ ) ৯(১)/৩০ রুজু হয়েছে। আসামী ১। মোঃ শামীম (৩০)  ২। মোঃ রিপন মিয়া (৩২)  ৩। মোঃ হাবিব (৩৫)  ও একজন অজ্ঞাত নামা সহ চারজনের নামে মামলা হয়েছে।

উক্ত ঘটনার পর থেকে আসামী গ্রেপ্তার করার জন্য  র‌্যাব-১৪,ময়মনসিংহ এর সার্বিক গোয়েন্দা ও আভিযানিক কার্যক্রম অব্যহত থাকে। এরই প্রেক্ষিতে ০৯/০৭/১৯ খ্রিঃ রাত্রি ৩.০০ঘটিকার সময় যাত্রাবাড়ি নয়নগর এলাকা হতে র‌্যাব-১৪ এর একটি আভিযানিক দল ১ নং আসামী মোঃ শামীমকে গ্রেপ্তার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে ।

৩।    উক্ত ঘটনা সংক্রান্তে গ্রেফতারকৃত আসামীকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর প্রক্রিয়াধীন।

৪।    প্রেস ব্রিফিং এ বক্তব্য রাখেন র‌্যাব-১৪ এর উপ অধিনায়ক মেজর শিবলী সাদিক।