৫ বছরে মাত্র একবার এটি খেলেই সারাজীবনের জন্য রোগভোগ ভুলে যাবে

অপরাধ সংবাদ ডেস্ক | শুক্রবার, অক্টোবর ২৫, ২০১৯
৫ বছরে মাত্র একবার এটি খেলেই সারাজীবনের জন্য রোগভোগ ভুলে যাবে

ষুধ পাল্লা দিতে প্রফেসর শঙ্কুর ‘মিরাকিউরলে’র সঙ্গেও! আর এর জন্য স্বর্ণপর্ণীর খোঁজেও যেতে হবে না আপনাকে। কারণ এর মূল উপকরণটি মিলবে আপনার রান্নাঘরেই। হ্যাঁ, জানেন কি আপনার সবজির ঝুড়িতেই অনাদরে পড়ে আছে সেই সর্বরোগনাশক ‘বটিকা ইন্ডিকা’?

এ এমন একটি ওষুধ যা পাঁচ বছরে মাত্র একবার খেলেই যথেষ্ট। এই ওষুধ বা বলা যেতে পারে এই বিশেষ মিশ্রণ মাত্র একবার খান আর পাঁচ বছরের জন্য অসুখ-বিসুখের হাত থেকে নিশ্চিন্ত হয়ে যান। ভাবছেন, এ আবার এমন কি, যা একবার খেলে পাঁচ বছর কোনও অসুখ হবে না? আজ নয়, চমত্‍কার এই ওষুধের আবিস্কার পাঁচ হাজার বছর আগে। এক তিব্বতি সন্ন্যাসী হাত ধরে এই মিশ্রণের জন্ম।

এই মিশ্রণের প্রধান উপকরণ হল রসুন। সারা বিশ্বেই রসুনকে এক চমত্‍কারী খাবার হিসেবে মনে করা হয়। উচ্চ রক্তচাপ, হাই কোলেস্টরল, হার্ট অ্যাটাকের মতো একাধিক অসুখ নিয়ন্ত্রণ রাখার কাজ করে রসুন। জেনে নিন কী ভাবে বানাবেন এই ওষুধ।

৩৫০ গ্রাম রসুনের সঙ্গে ২০০ এমএল অ্যালকোহল মেশাবেন। রাম হলে ভালো হয়। রাম না হলে যে অ্যালকোহল-ই মেশান, মনে রাখবেন যেন তাতে মিথানল বা বেনজালকোনিয়াম ক্লোরাইড না থাকে। প্রথমে খোসা ছাড়িয়ে রসুন চটকে নিন। এরপর এতে অ্যালকোহল মেশান। স্টেরিলাইজ করা কাঁচের বোতলে ১০ দিন রেখে দিন এই মিশ্রণ। ১০ দিন পর বোতল থেকে মিশ্রণ অন্য কোথাও ঢেলে আবার ওই বোতলে রেখে দিন। আরও দিন দুয়েকের জন্য মিশ্রণ ফ্রিজে ভরে রাখুন। ব্যস আপনার ম্যাজিক ওষুধ তৈরি।

এবার ১২ দিন ধরে ব্রেকফাস্টের আগে এই মিশ্রণের এক ফোঁটা, লাঞ্চের আগে এক ফোঁটা এবং ডিনারের আগে দু-তিন ফোঁটা খেয়ে ফেলুন। চমকে উঠবেন এর রেজাল্ট দেখে।