(ভিডিওসহ) জোর করে যৌনকর্মী হিসেবে ব্যবহার করায় দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে তরুণীর আত্মহত্যা

স্টাফ রিপোর্টার | বুধবার, মে ৬, ২০১৫
(ভিডিওসহ) জোর করে যৌনকর্মী হিসেবে ব্যবহার করায় দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে তরুণীর আত্মহত্যা
রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর একটি ঘর থেকে এক তরুণীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করছে পুলিশ। মৃত তরুণীর নাম সুমি আক্তার (২৮)।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সুমি যৌনকর্মী হিসেবে কাজ করতেন। তার বাড়ি রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার নীমপাড়া এলাকায়।

গত শনিবার বিকেলে যৌনপল্লীর সাথী বাড়িওয়ালীর ভাড়াটিয়া সুমির ঘর থেকে কোনো সাড়া-শব্দ না পেয়ে স্থানীয়রা ঘরের চালার নিচ দিয়ে ভেতরে উঁকি দেন।

এসময় সুমিকে ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন স্থানীয়রা। সন্ধ্যায় ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ।

স্থানীয়দের ধারণা, তাকে জোর করে যৌনকর্মী হিসেবে ব্যবহার করার ফলেই হয়তোবা সুমি আত্মহত্যা করেছে। অথবা তাকে হত্যা করে ঘরের আড়ায় ঝুলিয়ে রাখাও হতে পারে বলে তাদের ধারনা।